নবী আওয়াজ করেছিলেন ফাতুল মক্কা, আমরা বলি জয় বাংলা : শাজাহান খান

প্রকাশিত: ১২:১২ পূর্বাহ্ণ, মে ৬, ২০১৮

নবী আওয়াজ করেছিলেন ফাতুল মক্কা, আমরা বলি জয় বাংলা : শাজাহান খান

মুক্তিযুদ্ধের রণধ্বনী ‘জয় বাংলা’ শ্লোগান না দিলে স্বাধীনতা বিশ্বাস থাকে কী করে, সে প্রশ্ন রেখেছেন নৌপরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান। শাহাজান খান বলেন, ‘যারা বলেন ‘জয় বাংলা’ হিন্দুদের শ্লোগান তারা ইসলামের ইতিহাস পড়েন। আমাদের প্রিয়নবী হযরত মুহাম্মদ (স.) মক্কা বিজয়ের সময় একটি আওয়াজ করেছিলেন ‘ফাতুল মক্কা, ফাতুল মক্কা’। এর আরবি শব্দের অর্থ হচ্ছে ‘জয় মক্কা, জয় মক্কা’। ‘যদি আমাদের নবী নিজের মাটির জন্য ‘জয় মক্কা’ বলতে পারেন, তা হলে আমার মাটির বিজয়ের জন্য কেন ‘জয় বাংলা’ বলতে পারব না?’।

শনিবার মাদারীপুর শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে জেলা মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম লীগের দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনে বক্তব্য রাখছিলেন শাজাহান খান।
নতুন প্রজন্মকে এই শ্লোগানে বিশ্বাস রাখার আহ্বান জানিয়ে জয় বাংলার নিন্দা করতে ধর্ম ব্যবহার করে যে সমালোচনা করা হয় তারও জবাব দেন মন্ত্রী।

নৌমন্ত্রী বলেন, ‘একটি বিষয়ের প্রতি গুরুত্ব সহকারে লক্ষ্য রাখতে হবে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে যেন কেউ কটাক্ষ না করে। যে ব্যক্তি বঙ্গবন্ধুকে জাতির পিতা স্বীকার করে না, জয় বাংলা শ্লোগান দেয় না, সে বাংলাদেশের স্বাধীনতায় বিশ্বাস করে না।’

বিএনপির সমালোচনা করে নৌমন্ত্রী বলেন, ‘দেশে গণহত্যা দিবস বিএনপি কোন দিন পালন করতে পারবে না। কারণ বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়া ২০০২ সালে প্রধানমন্ত্রী থাকা অবস্থায় বিশ্বের ১১৪টি দেশ মিলিত হয়ে একটি সম্মেলনে বসেছিলেন এবং সেখানে একটি চুক্তি হয়েছিল ২০০২ সালের পূর্বে যে সমস্ত দেশে গণহত্যা হয়েছিল সেসব দেশে এর কোন বিচার হবে না। খালেদা জিয়া আর কোন দিন বলতে পারবে না যে, সে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের লোক।’

তরুণ প্রজন্মের উদ্দেশ্যে মন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের মধ্যে কোন কোন্দল নেই। আমরা আওয়ামী লীগকে ভালোবাসি। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে কাজ করি। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ নিয়ে রাজনীতি করি।’

‘তরুণই প্রজন্মকেও একই আদর্শ বুকে ধারই করে রাজনীতিতে সামনের দিকে এগিয়ে আসতে হবে। দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষা করতে হবে।’

নতুন প্রজন্মকে বঙ্গবন্ধুরর আদর্শ ধারণের পরামর্শ দেন শাজাহান। বলেন, ‘তার দর্শন হচ্ছে ক্ষুধা ও দারিদ্র্য মুক্ত, শোষণমুক্ত বাংলাদেশ।’

‘বঙ্গবন্ধু, জয় বাংলা, আমার স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব এবং বাংলাদেশ এই যে বিষয়গুলো চেতনায় দিতে হবে।’

‘বঙ্গবন্ধুর একটি স্বপ্ন ছিল সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠা করা। সেই স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করার জন্য আমরা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সামনের দিকে এগিয়ে চলেছি। আর তাই সকলকে একত্রে থাকতে হবে। নিজেদের মধ্যে কোন ভেদাভেদ সৃষ্টি করা যাবে না।’

মাদারীপুর জেলা মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম লীগের সভাপতি সাইদুল বাশার টফির সভাপতিত্বে সম্মলনে সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি আসাদুজ্জামান দুর্জয়, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মিয়াজ উদ্দিন খান, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার শাজাহান হাওলাদার, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি জাহাঙ্গীর কবির, জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সাইফুর রহমান রুবেল খান প্রমুখ বক্তব্য দেন।

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট