বিএনপি মেনেই নিয়েছে তারা আত্মস্বীকৃত দুর্নীতিবাজ : ওবায়দুল

প্রকাশিত: ১২:০৭ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ২৯, ২০১৮

বিএনপি মেনেই নিয়েছে তারা আত্মস্বীকৃত দুর্নীতিবাজ : ওবায়দুল

বিএনপি যে আত্মস্বীকৃত দুর্নীতিবাজ দল তা দলটি মেনেই নিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

বুধবার সচিবালয়ে মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে এক ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে সেতুমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল বলেন ‘বিএনপিকে সমাবেশ করার অনুমতি দিলে বলে সরকার বাধ্য হয়ে অনুমতি দিয়েছে। আবার অনুমতি না দিলে বলে দেশে গণতন্ত্র নাই। এখন আপনারাই বলেন, বিএনপিকে নিয়ে আমরা কী করি!’

ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকরা সেতুমন্ত্রীকে প্রশ্ন করেন— বৃহস্পতিবার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বিএনপিকে সমাবেশ করার অনুমতি দেবেন কি না। এ প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, ‘বিএনপিকে সমাবেশের অনুমতি দেওয়া হবে কি না, সেটি ডিএমপি কমিশনারের ব্যাপার। তারা বিএনপির সমাবেশকে নিরাপদ মনে করলে অনুমতি দেবে, নিরাপদ মনে না করলে অনুমতি দেবে না। এই সমাবেশের অনুমতি দেওয়া, না দেওয়া নিয়েই আমরা বেকায়দায় আছি। অনুমতি দিলে বলে সরকার বাধ্য হয়ে অনুমতি দিয়েছে। আবার অনুমতি না দিলে বলে দেশে গণতন্ত্র নাই।’

ওবায়দুল কাদের আরো বলেন, ‘সরকারকে বাধ্য করতে গত ৯ বছরে ৯ মিনিটের জন্যও বিএনপি কিছু করে দেখাতে পারেনি। তাদের শাসনামলেও আমাদের এমন দিন গেছে যে আমরা আমাদের পার্টি অফিসের সামনে পর্যন্ত দাঁড়াতে পারিনি।’

সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘মানুষ এখন ইলেকশনের মুডে আছে, আন্দোলনের মুডে নয়। লিপ সার্ভিস দিয়ে এখন আর ভোট পাওয়া যায় না। ভোট পেতে হলে উন্নয়ন দেখাতে হয়, কাজ দেখাতে হয়। বিএনপির এমন কোনও কাজ নাই যা নিয়ে মানুষের কাছে ভোট চাইতে যাবে।’

আরো পড়ুন…
স্বাধীনতা বিরোধীদের বিষ বৃক্ষের মূলোৎপাটন করতে হবে: ওবায়দুল কাদের
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, স্বাধীনতা বিরোধীদের বিষ বৃক্ষের মূলোৎপাটন করতে হবে।

তিনি আরো বলেন, আমাদের এখনো অন্তরায় আছে। সেটা হচ্ছে বাংলাদেশের স্বাধীনতা বিরোধীরা মুক্তিযুদ্ধের মূল্যবোধের বিরুদ্ধে কালো ছায়া বিস্তার করে আছে।

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল আরো বলেন, জাতিসংঘ কর্তৃক বাংলাদেশকে উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে প্রথম ধাপ উত্তরণের যে স্বীকৃতিই এটাই প্রমাণ করে বাংলাদেশ কতটা এগিয়েছে।

সোমবার (২৬ মার্চ) সকালে জাতীয় স্মৃতিসৌধে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে শহীদদের ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানো শেষে তিনি সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

এসময় স্বাধীনতা বিরোধীদের প্রতি সবার সোচ্চার থাকতে হবে বলেও জানান ওবায়দুল কাদের।

এর আগে সকাল ৬টা ১ মিনিটে জাতীয় স্মৃতিসৌধের বেদিতে প্রথমে রাষ্ট্রপতি এরপর ৬টা ২ মিনিটে প্রধানমন্ত্রী পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। তারা ১৯৭১ সালের মহান স্বাধীনতা যুদ্ধের বীর শহীদদের স্মরণে কয়েক মিনিট নীরবে দাঁড়িয়ে থাকেন।

  •  

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট