বিকালে বিএনপি ও সন্ধ্যায় আ,লীগের সংবাদ সম্মেলন

প্রকাশিত: ২:১৯ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৭, ২০১৮

বিকালে বিএনপি ও সন্ধ্যায় আ,লীগের সংবাদ সম্মেলন

বুধবার বিকাল ৫টায় বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া গুলশানের তার রাজনৈতিক কার্যালয়ে জরুরি সংবাদ সম্মেলন ডেকেছেন। এই তথ্য জানিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইংয়ের কর্মকর্তা শায়রুল কবির খান।

অন্যদিকে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সংবাদ ডেকেছে। আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপের পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

বুধবার সন্ধ্যা ৬টায় রাজধানীর ধানমণ্ডির দলের সভানেত্রী শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করবেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

ওবায়দুল কাদের দলের পক্ষে আগামীকাল বৃহস্পতিবার বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলার রায় ঘোষণা কেন্দ্র করে দেশের সর্বশেষ পরিস্থিতি ও দলের করণীয় নিয়ে বক্তব্য রাখতে পারেন।

অন্যদিকে খালেদা জিয়া ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় রায়ের আগের দিন এই সংবাদ সম্মেলন ডাকায় ধারণা করা হচ্ছে মামলা সংক্রান্ত বিষয়ে আত্মপক্ষ সমর্থনে জাতির সামনে নিজের অবস্থান ব্যাখ্যা এবং দেশের সার্বিক রাজনৈতিক পরিস্থিতি তুলে ধরবেন তিনি।

৮ই ফেব্রুয়রি খালেদা জিয়ার রায়কে কেন্দ্র করে হঠাৎ রাজনীতির মাঠ গরম হয়ে উঠেছে। সারাদেশের বিএনপির নেতাকর্মীদের ব্যাপক ধরপাকড় চালাচ্ছে পুলিশ। ৩০ শে জানুয়ারি বিকেলে বেগম খালেদা জিয়া আদালত থেকে বাসায় ফেরার সময় রাজধানীর জাতীয় ঈদগাহের সামনে কদম ফোয়ারার মোড়ে পুলিশের সঙ্গে বিএনপি নেতাকর্মীদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এসময় পুলিশের প্রিজন ভ্যান ভেঙে আগেই আটক করা বিএনপির দুই নেতাকে ছাড়িয়ে নেয় দলটির নেতারা। এতে নতুন করে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে রাজনীতির মাঠ। এর পর থেকে আজ মঙ্গলবার পর্যন্ত ১২ শতাধিক বিএনপি নেতাকর্মী আটকের অভিযোগ করেছে দলটি।

অন্যদিকে ৮ ফেব্রুয়ারি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার দুর্নীতি মামলার রায়ের দিন ঢাকার রাস্তায় দাঁড়িয়ে বা বসে কোনও ধরনের মিছিল করা যাবে না বলে ঘোষণা দিয়েছেন ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া।

এদিকে ‘বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মামলার ৮ তারিখের রায়কে কেন্দ্র করে নৈরাজ্য সৃষ্টি করলে কঠোরভাবে মোকাবেলা করবে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী’। এই বলে মন্তব্য করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

এছাড়া রায়ের দিন আওয়ামী লীগ মাঠে থাকা না থাকা নিয়ে ধোঁয়াশা সৃষ্টি হয়েছে, দলটির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও বাণিজ্যমন্ত্রী রাজপথে আওয়ামী লীগ নামবে না। তবে কেউ বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করলে তা আইনশৃঙ্খলা বাহিনী দেখবে।

অন্যদিকে মঙ্গলবার আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘খালেদা জিয়ার মামলার রায়ের দিন ৮ ফেব্রুয়ারি আওয়ামী লীগ কোন পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি দেবে না। তবে, জননিরাপত্তায় বিঘ্ন ঘটলে পুলিশকে সহযোগিতায় রাস্তায় নামবে আওয়ামী লীগ’।