জেল হত্যা দিবসে জেলা ও মহানগর আ’লীগের আলোচনা সভায় বক্তারা

প্রকাশিত: ১২:৩৫ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ৪, ২০১৭

জেল হত্যা দিবসে জেলা ও মহানগর আ’লীগের আলোচনা সভায় বক্তারা

৩ নভেম্বর জেল হত্যা দিবস উপলক্ষে সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে শুক্রবার সিলেট জেলা পরিষদ মিলনায়তনে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সদস্য, সিলেট মহানগরের সভাপতি সাবেক মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরানের সভাপতিত্বে ও ফয়জুল আনোয়ার আলাওর এর পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদ’র চেয়ারম্যান এডভোকেট লুৎফুর রহমান, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী, এডভোকেট শাহ ফরিদ আহমদ, মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল খালিক, অধ্যক্ষ সুজাত আলী রফিক, হুমায়ূন ইসলাম কামাল, মোহাম্মদ আলী দুলাল, মো. সায়ফুল আলম রুহেল, আজহার উদ্দিন জাহাঙ্গির, তপন মিত্র, এমাদ উদ্দিন মানিক, হাজী রইছ আলী, এড. মকর কুমার দত্ত, এড. গোলাম সুবহান চৌধুরী দিপন, হাজী মইনুল ইসলাম, এম. এ মোমিন চৌধুরী, এ আর সেলিম, এড. আজমল আলী, এড. বদরুল ইসলাম জাহাঙ্গির, সামসুন নাহার মিনু, এজাজুল হক এজাজ, শামীম রশিদ চৌধুরী, খন্দকার মহসিন কামরান, জালাল উদ্দিন কয়েছ, মুজিবুর রহমান মাসুক, সুহেল আহমদ সাহেল, আবুল কালাম ফনিক, এম এ সামাদ, আব্দুল আলিম তুষার, প্রমুখ।
সভাপতির বক্তব্যে বদর উদ্দিন আহমদ কামরান বলেন, সমৃদ্ধ বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা করতে জাতীয় নেতৃবৃন্দের ত্যাগের প্রতি শ্রদ্ধা ও সম্মান জানাতে হবে। স্বাধীন সার্বভৌম রাষ্ট্র ও শোষণমুক্ত সমাজের আকাঙ্খায় ১৯৭১ এ বাংলাদেশের অভ্যূদয় হয়। বাঙ্গালির অবিসংবাদিত নেতা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে গণ ঐক্যের ভিত্তিতে ও মুক্তিযোদ্ধের চেতনায় অসাম্প্রদায়িক গণতান্ত্রিক বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠা অভিযাত্রাকে রুখে দিতে ১৯৭৫ এর ১৫ই আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে প্রথম আঘাত এনে ইতিহাসের চাকা পেছনে ঠেলে দেয়। মুক্তিযুদ্ধের আদর্শের ভিত্তিতে গড়ে উঠা বাংলাদেশকে পশ্চাৎপদ পতিত ভাবধারা পরাজিত আদর্শের পালে চালিত করতে ১৯৭৫ এর ৩রা নভেম্ব জেল খানায় বন্দীরত জাতীয় চার নেতা তাজ উদ্দিন আহমদ, সৈয়দ নজরুল ইসলাম, ক্যাপ্টেন এম মনসুর আলী ও কামরুজ্জামানকে হত্যা করা হয়। মুক্তিযুদ্ধের ধারার উপর দ্বিতীয় আঘাত আমাদেরকে ইতিহাস থেকে শিক্ষা নিয়ে সকল অগণতান্ত্রিক শক্তিকে রুখে দিতে জনগণের সুদৃঢ় রাজনৈতিক গড়ে তুলতে হবে। জনগণের আশা আকাঙ্খার বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা করে জাতীয় চার নেতা সহ সকল শহীদের প্রতি শ্রদ্ধা ও সম্মান প্রদর্শন করে আমাদের কাজ করে যেতে হবে।

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট