অদম্য ইচ্ছাশক্তি আর আত্মপ্রত্যয়ের কাছে হার মেনেছে সকল দারিদ্রতা : মেয়র আরিফ

সিলেট বিভাগ

সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেছেন, দরিদ্র মেধাবীরা সুযোগ পেলেই হতে পারে দেশের অহঙ্কার। সেই শিক্ষার্থীদের অদম্য ইচ্ছাশক্তি আর আত্মপ্রত্যয়ের কাছে হার মেনেছে সকল দারিদ্রতা। এরা কেউ দিনমজুর, কেউ রিক্সাচালকের সন্তান, কেউ ভূমিহীন বাবার সন্তান আবার কেউ কায়িক পরিশ্রমী। অভাব অনটনে চলে তাদের সংসার। একবেলা খাবার পেলে আরেক বেলা খেতে পায় না তারা। এরপরও নিজেদের স্বপ্ন পূরণের জন্য প্রাণপণে চেষ্টা করে গেছে সেই শিক্ষার্থীরা। তাদের অক্লান্ত পরিশ্রম ও চেষ্টায় পেয়েছে সফলতা। দরিদ্র বাবা-মার কুড়েঘরে এরা যেন চাঁদের হাসি ফুটিয়েছে। জীবনের প্রতিটি বাঁকে তারা দারিদ্রতার কারণে বাধাগ্রস্ত হয়েছে। তবুও তারা পিছু হটেনি। মনে সাহস ও প্রবল ইচ্ছাশক্তি নিয়ে এগিয়ে গেছে। তিনি সমাজের ধনী ব্যক্তিদের কাছে এসব শিক্ষার্থীদের পড়ালেখার খরচ ও স্বপ্ন পূরণে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান। বিদ্যালয়ের বিভিন্ন সমস্যার জবাবে তিনি বলেন, সব ধরনের সমস্যার আশু সমাধান শীঘ্রই হবে এবং স্কুলের প্রধান শিক্ষক সহ অন্যান্য বিষয়ের শিক্ষক নিয়োগ করা হবে। আমি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে আলাপ-আলোচনা করে যতো শীঘ্রই সম্ভব এসব সমস্যার সমাধান সহ নৈশ উচ্চ বিদ্যালয় কে কলেজের রূপান্তরিত করার পদক্ষেপ নিব।

তিনি শনিবার রাত ৯টায় মৃত্তিকা ছাত্র ফোরাম ও প্রাক্তন ছাত্রদের উদ্যোগে ভোলানন্দ নৈশ উচ্চ বিদ্যালয় থেকে পাসকৃত ২০১৭ সালের এসএসসি এবং এইচএসসি উত্তীর্ণ কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

প্রাক্তন ছাত্র ও সংগঠনের সদস্য মো. আল আমিন এবং ঈমান হোসেনের যৌথ পরিচালনায় প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন, প্রাক্তন সিনিয়র শিক্ষক রফিকুর রহমান লজু।

বিদ্যালয়ে সিনিয়র শিক্ষক বিজয় ভূষণ ধরের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, নুরজাহান মোমোরিয়াল মহিলা ডিগ্রী কলেজের রসায়ন বিভাগের প্রভাষক মো. হুমায়ুন কবির জুয়েল, জাতীয়ভাবে শ্রেষ্ঠ যুবসংগঠক ২০১০ পদকপ্রাপ্ত ও সিলেট কল্যাণ সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মোহাম্মদ এহছানুল হক তাহের, সিনিয়র শিক্ষক জহিরুল ইসলাম, সহকারী শিক্ষক সাইদুর রহমান, স্বপ্নোত্থানের সভাপতি আল ফয়সাল অনিক, সাধারণ সম্পাদক মেহেদী কবীর।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন অনুষ্ঠানের সমন্বয়ক প্রাক্তন শিক্ষার্থী সাইফুল শিকদার ও শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন প্রাক্তন ছাত্র মৃত্তিকা ছাত্র ফোরামের সভাপতি ফখরুল আল-হাদী।

উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য রাখেন, প্রাক্তন শিক্ষার্থী আনোয়ার হোসেন, মো. দেলোয়ার হোসেন, সুলাইমান আহমদ (সোহেল), মো. আবু বক্কর জালালী, মাহফুজ আলম, এসএসসি পরীক্ষার্থী মো. মুখলেছুর রহমান ও জেএসসি পরীক্ষার্থী মো. রশীদ আহমদ সুমন প্রমুখ। অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলায়াত করেন প্রাক্তন ছাত্র ও সংগঠনের প্রচার সম্পাদক মো. সাবুল আহমেদ ও গীতা পাঠ করেন সংগঠনের সদস্য শুভংকর শীল।

Leave a Reply