সিলেটে ছাত্রলীগ কর্মী খুনের ঘটনায় চারদিনের কর্মসূচি

সিলেট বিভাগ

অভ্যন্তরীণ কোন্দলের জেরে নিজ দলের কর্মীদের ছুরিকাঘাতে ছাত্রলীগ কর্মী ওমর ফারুক মিয়াদ নিহতের ঘটনায় বৃহস্পতিবার সিলেটের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছাত্র ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে ছাত্রলীগের একাংশ। একই সাথে হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এম. রায়হান চৌধুরীর গ্রেফতারও দাবি করেছে তারা।

মিয়াদ হত্যার প্রতিবাদে মঙ্গলবার নগরীর চৌহাট্টা এলাকায় বিক্ষোভ শেষে ছাত্র ধর্মঘটসহ চারদিনের এই কর্মসূচী ঘোষণা করেন জেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কামরুল ইসলাম। এর আগে সকালে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে ওমর আলী মিয়াদের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়। বেলা ১২টায় ময়নাতদন্ত শেষে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করে নগরীর চৌহাট্টায় এসে মিছিল শেষ করে।

কর্মসূচীর মধ্যে রয়েছে- বুধবার এমসি কলেজ ও সরকারি কলেজে বিক্ষোভ মিছিল, বৃহস্পতিবার এমসি কলেজ, সরকারি কলেজসহ সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ধর্মঘট, শুক্রবার (২০ অক্টোবর) বাদ জুমা শাহজালাল মাজারে মিলাদ মাহফিল ও দোয়া, শনিবার (২১ অক্টোবর) সকাল ১০ টায় তৃণমূল ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে নগরীর কোর্ট পয়েন্টে বিক্ষোভ মিছিল ও অবস্থান কর্মসূচী ঘোষণা করা হয়।

উল্লেখ্য, সোমবার বিকেলে নগরীর টিলাগড় জামে মসজিদের পাশের গলিতে প্রতিপক্ষ গ্রুপের কর্মীদের ছুরিকাঘাতে নিহত হন ছাত্রলীগ নেতা ওমর আহমদ মিয়াদ (২২)। তিনি জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি হিরন মাহমুদ নিপু গ্রুপের কর্মী। তার উপর হামলাকারীরা জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এম রায়হান চৌধুরী গ্রুপের কর্মী। হামলায় আহত হয়েছেন আহত নাসির ও তারিক নামে আরও দুই ছাত্রলীগ কর্মী।

Leave a Reply