নগর ভবন সর্ম্পূন্ন রাজনীতিমুক্ত রেখেছি : মেয়র আরিফ

প্রকাশিত: ১২:৫৯ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ২৭, ২০১৭

নগর ভবন সর্ম্পূন্ন রাজনীতিমুক্ত রেখেছি : মেয়র আরিফ

সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেছেন, পরিষ্কার পরিচন্নতা ঈমানের অঙ্গ। তাই আমরা পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকবো। নিজ নিজ বাসা-বাড়ি ও কর্মক্ষেত্রসহ সবকিছু পরিচ্ছন্ন রাখবো। সবাই মিলে গড়বো সুন্দর সিলেট নগরী।

বুধবার দুপুরে সিলেট আদালত প্রাঙ্গণে পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা অভিযান উদ্বোধন শেষে জেলা বার মিলনায়তনে জেলা আইনজীবী সমিতির উদ্যোগে আয়োজিত সভায় তিনি একথা বলেন।
সভায় মেয়র আরিফ বলেন, প্রিয় সিলেট নগরীকে একটি মডেল নগরী হিসেবে রূপ দিতে আমরা কাজ করছি। নগরীর রাস্তাঘাট, ড্রেইন-কালভার্ট, বিদ্যুৎ ব্যবস্থাসহ প্রতিটি ক্ষেত্রে ব্যাপক উন্নয়ন কাজ করা হয়েছে সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে। প্রতিদিন নগরীর প্রতিটি স্থান পরিস্কার করা হচ্ছে। পুরো নগরী সুন্দর তথা পরিচ্ছন্ন রাখতে সবার সহযোগিতা প্রয়োজন উলেøখ করে মেয়র আরিফ বলেন, আমরা ভিন্ন ভিন্ন রাজনৈতিক আদর্শ ধারণ করতে পারি। কিন্তু সিলেটের উন্নয়নে সবাইকে একত্রিত হতে হবে। মেয়র বলেন, নগর ভবনকে আমি রাজনীতিমুক্ত রেখেছি। নগরীর প্রতিটি নাগরিক এখান থেকে তাদের কাক্সিক্ষত সেবা গ্রহণ করছেন।
আদালত প্রাঙ্গণে সিসি ক্যামেরা স্থাপনের জন্য সভায় জেলা আইনজীবী সমিতির পক্ষ থেকে মেয়র আরিফের কাছে দাবি জানানো হলে তিনি বলেন, এব্যাপারে সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে সার্বিক সহযোগিতা করা হবে। এব্যাপারে দক্ষ ব্যক্তিদের দিয়ে একটি কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করা হোক। অপর এক দাবির জবাবে মেয়র বলেন, আদালত এলাকায় পাবলিক টয়লেট স্থাপন করা হবে সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে। এটার পরিস্কার পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য লোকও দিবে নগরভবন। তবে এটা তথ্যাবধান করতে হবে বার কর্তৃপক্ষকে। আদালত প্রাঙ্গণ পরিষ্কার করার জন্য প্রতিদিনই সিটি কর্পোরেশনের পরিচ্ছন্ন কর্মী সেখানে পাঠানো হবে বলেও আশ্বাস দেন মেয়র আরিফ।

জেলা বারের সভাপতি এডভোকেট মোহাম্মদ লালা’র সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক হোসেন আহমদের পরিচালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন- সিলেটের চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিট্রেট কাজী আব্দুল হান্নান, সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এনামুল হাবিব, কাউন্সিলর সৈয়দ মিসবাহ উদ্দিন, সৈয়দ তৌফিকুল হাদী, মো. রাজিক মিয়া, আব্দুর রকিব তুহিন, জিপি খাদেমুল মিল্লাত মোহাম্মদ জালাল, এডিশনাল পিপি শামছুল ইসলাম, ভারপ্রাপ্ত প্রধান প্রকৌশলী নূও আজিজুর রহমান, নির্বাহী প্রকৌশলী আলী আকবর, প্রকৌশলী (বিদ্যুৎ) রুহুল আমিন, কন্জারভেন্সি শাখার প্রধান মো. হানিফুর রহমান, হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা আ.ন.ম মনছুফ, জেলা আইনজীবী সমিতির যুগ্ম সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন দিলু ও মো. আকমল খান, সহসমাজ সেবা বিষয়ক সম্পাদক মো. সেলিম মিয়া, লাইব্রেরি সম্পাদক বিকাশ রঞ্জন অধিকারী, সহসম্পাদক দিলরুবা বেগম কাকলী ও হোসাইন আহমদ শিপন, নির্বাহী সদস্য আব্দুল গফফার, দীনা ইয়াসমিন, মিছবাহ উদ্দিন চৌধুরী প্রমুখ।

  •  

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট