টাওয়ার হ্যামলেটস’র প্রথম নারী স্পিকার কুলাউড়ার সাবিনা

প্রকাশিত: ২:০৯ পূর্বাহ্ণ, জুন ১, ২০১৭

টাওয়ার হ্যামলেটস’র প্রথম নারী স্পিকার কুলাউড়ার সাবিনা

বাংলাদেশের মেয়েরা কিংবা বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত মেয়েরা দেশে ও প্রবাসে তাদের নিজেদের যোগ্যতার স্বাক্ষর রেখে যাচ্ছেন প্রতিনিয়ত। তাদের সাফল্যে যেমন তারা নিজেরা গর্বিত সেই সাথে গর্ববোধ করে বাঙালি তথা বাংলাদেশ।

তেমনি অনন্যসেক্টর ইংল্যান্ডের রাজনীতিতে নিজের যোগ্যতার স্বাক্ষর রাখলেন সাবিনা। তিনি পূর্ব লন্ডনের বাংলাদেশি অধ্যূষিত টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলে মেয়র কিংবা স্পিকার পদে বাঙালিদের দায়িত্ব পালন করা প্রথম বাঙালি নারী।

তবে সাবিনা আক্তার এ কাউন্সিলে প্রথম বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত নারী হিসেবে স্পিকার হলেন। গত ১৭মে তিনি কাউন্সিলের সাধারণ সভায় স্পিকার নির্বাচিত হন। ২০১৫ সালের জুন মাসে স্টেপনি ওয়ার্ড থেকে নির্বাচিত কাউন্সিলর সাবিনা গত এক বছর ডেপুটি স্পিকার হিসেবে দায়িত্ব পালন করে বেশ সুনাম অর্জন করেন।

সাবিনা আক্তার প্রায় ২০ বছর ধরে লেবার পার্টির রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত আছেন। স্পিকার হিসেবে তাঁর মূল কাজ কাউন্সিলের অধিবেশনে সভাপতিত্ব করা এবং অধিবেশন পরিচালনা করা। এছাড়া রাষ্ট্রীয় ও সামাজিক অনুষ্ঠানে কাউন্সিলের প্রতিনিধিত্ব করা। সেই সঙ্গে ‘স্পিকার্স ডিনার’ আয়োজনের মধ্য দিয়ে তিনি নিজের পছন্দমতো দাতব্য সংস্থার জন্য তহবিল যোগান দেবেন।

পূর্ব লন্ডনে জন্ম নেওয়া এই বাঙালি নারীর গ্রামের বাড়ি মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়ায়। সাবিনা বলেন- বাংলাদেশের সঙ্গে আমার সম্পর্ক এখনও অটুট। প্রায় প্রতিবছরই আত্মীয়দের সঙ্গে সময় কাটাতে বাংলাদেশ ঘুরে আসি।

সাবিনার সঙ্গে ডেপুটি স্পিকার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত আরেক কাউন্সিলর আয়াছ মিয়া। টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের মোট ৪৭ জন কাউন্সিলরের মধ্যে ২৬ জনই বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত বলে জানা গেছে।

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট