তৃণমূলে উজ্জীবিত বিএনপি ।। দেশব্যাপী প্রতিনিধি সভায় ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা

প্রকাশিত: ১:৫৫ পূর্বাহ্ণ, মে ৮, ২০১৭

তৃণমূলে উজ্জীবিত বিএনপি ।। দেশব্যাপী প্রতিনিধি সভায় ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা
রফিক মৃধা : সারাদেশে দল পুনর্গঠনে ৭৫টি রাজনৈতিক জেলায় ৫১টি টিম কাজ করায় চাঙ্গা হয়েছে তৃণমূল বিএনপি। বিএনপির স্থানীয় ও কেন্দ্রীয় নেতাদের সমন্বয়ে বিএনপির প্রতিটি কর্মিসভা বিশাল জনসভায় রূপ নেয়। তবে অনেক জেলায় পুলিশ ও সরকার দলীয় সন্ত্রাসীরা বাধা দিয়েছে বিএনপির কর্মিসভায়। বিএনপি ৫১ টিম সারাদেশে কর্মিসভা এবং দলের সাংগঠনিক কার্যক্রমে কেন্দ্রীয় নেতাদের পদচারণায় নেতাকর্মীদের মাঝে ফিরে পেয়েছে প্রাণচাঞ্চল্য। এ প্রতিনিধি সভা শান্তিপূর্ণভাবে করতে পারায় তারা খুবই খুশি। বিএনপির সকল পর্যায়ের নেতাকর্মীরা এতে সন্তুষ্ট। সিনিয়র নেতাকর্মীদের প্রতি তৃণমূল নেতাকর্মীদের নানা কারণে যে রাগ-অভিমান ছিল তা অনেকটাই কেটে গেছে। সরকার বিরোধী যে কোনো আন্দোলনে শরিক হতে তারা আত্মবিশ্বাসী হয়ে উঠেছে। বিএনপির একাধিক নেতা জানান, আগামী নির্বাচন সামনে রেখে দলের পক্ষ থেকে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া শিগগিরই নির্বাচনকালে ‘সহায়ক সরকার’ নামে একটি রূপরেখার প্রস্তাব তুলে ধরবেন। এ প্রস্তাব যদি সরকার গ্রহণ না করে, তাহলে সারাদেশে এর পক্ষে জনমত গড়ে তোলা হবে। একই সঙ্গে সরকারের সঙ্গে কোন পদ্ধতিতে নির্বাচন হবে, সে বিষয় নিয়ে আলোচনার পাশাপাশি সরকার বিরোধী আন্দোলন গড়ে তোলার জন্য তৃণমূল নেতাকর্মীদের মনোবল চাঙ্গা রাখতে নতুন করে উদ্যোগ নেয় বিএনপি। জাতীয় রাজনীতি ও সাংগঠনিক বিষয় নিয়ে নেতাকর্মীদের সাথে মতবিনিময় ও আলোচনা সভা করায় নেতাকর্মীদের মাঝে আস্থা ও সাংগঠনিক শক্তি বৃদ্ধি পেয়েছে। গাজীপুরে বিএনপির প্রতিনিধি সভা হয়েছে গত বৃহস্পতিবার। এতে গাজীপুর জেলার প্রতিটি উপজেলা ও ইউনিট থেকে প্রতিনিধিরা যোগ দেন। এতদিন পুলিশি বাধার কারণে প্রকাশ্যে দলীয় কোনো কর্মসূচিতে অংশ নিতে পারছিল না বিএনপির নেতাকর্মীরা। কিন্তু বৃহস্পতিবার এ সুযোগ পেয়ে বিএনপির তৃণমূল নেতাকর্মীদের মধ্যে যেন আনন্দের ঢেউ লাগে। ফিরে পায় প্রাণ চাঞ্চল্য। বাঁধভাঙ্গা জোয়ারের মত জেলার নানা প্রান্ত থেকে তারা ছুটে আসে। ব্যানার-ফ্যাস্টুনসহ মিছিল নিয়ে যোগ দেয় প্রতিনিধি সভায়। ‘খালেদা জিয়ার ভয় নাই রাজপথ ছাড়ি নাই’ সেøøাগানে মুখরিত করে তোলে গাজীপুর শহরের বঙ্গতাজ অডিটরিয়াম ও এর আশপাশের এলাকা। প্রতিনিধি সভাটি এক পর্যায়ে রূপ নেয় এক বিশাল জনসভায়। এ প্রতিনিধি সভা সম্পর্কে শহরের হোটেল-রেস্তোরাঁ, চা- দোকানসহ নানা স্থানে ব্যাপক আলোচনা হয়। সেদিন স্বতঃস্ফূর্ত ও শান্তিপূর্ণ এ প্রতিনিধি সভায় প্রায় সকল বক্তার বক্তব্যে গুরুত্ব পায় বিএনপি নেতাকর্মীদের ঐক্য। সভায় নেতৃবৃন্দ উদাহরণ টেনে বলেছেন, ’৯১ সালে নেতাকর্মীরা ঐক্যবদ্ধ ছিল বিধায় দেশের সর্বোচ্চ ভোট পেয়েছিল ধানের শীষ। গত সিটি করপোরেশনের মেয়র নির্বাচনে নেতাকর্মীরা ঐক্যবদ্ধভাবে মাঠে কাজ করায় বিএনপি মনোনীত প্রার্থী লক্ষাধিক ভোটের ব্যবধানে জয়ী হয়েছিল। অনুরূপভাবে ঐক্যবদ্ধ থাকতে পারলে আগামী দিনের সকল নির্বাচনেও বিএনপির প্রার্থীরা বিপুল ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী হতে পারবে। : ৫ জানুয়ারির নির্বাচনের পর কয়েক দফা সরকার বিরোধী আন্দোলনে সরকারের নির্যাতনে নিস্তেজ হয়ে যাওয়া বরিশাল বিএনপি উজ্জীবিত। বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতারা সফর করায় দলের সাংগঠনিক শক্তি বৃদ্ধি ও তৃণমূল চাঙ্গা হয়ে উঠেছে। বিএনপি সব সময়ই বরিশালে সক্রিয়। : এদিকে খুলনা মহানগর ও সকল ওয়ার্ড, থানা, ইউনিয়ন বিএনপির নেতাকর্মীরা স্বতঃস্ফূর্তভাবে কর্মসূচিতে অংশ নেন। কর্মসূচিকে ঘিরে সর্বস্তরের কর্মীদের মাঝে উৎসবের আমেজ সৃষ্টি হয়। প্রতিনিধি সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে তৃণমূলের কর্মীরা নানা সমস্যা তুলে ধরেন এবং দলকে সংগঠিত ও ঐক্যবদ্ধ করতে সম্মেলনের মাধ্যমে তৃণমূলের মতামতের ভিত্তিতে বিএনপি এবং সকল অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের কমিটি গঠনের ওপর সর্বোচ্চ গুরুত্ব প্রদান করেন। প্রতিনিধি ও আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ প্রেসক্লাব মিলনায়তনে এবং বিপুল সংখ্যক কর্মী-সমর্থক বাইরে রাস্তায় ও প্রেসক্লাব চত্বরে অবস্থান নেন। তারা কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দকে মিছিলে সেø­াগানে স্বাগত জানান। দেশের অন্যান্য স্থানেও বিএনপি নেতাকর্মীরা আরো বেশি শক্তিশালী হচ্ছে। : বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী দৈনিক দিনকালকে বলেন, কেন্দ্রীয় টিমের সাংগঠনিক এ সফরে তৃণমূলে খুবই ভাল কাজ হচ্ছে। প্রতিনিধি সভার মাধ্যমে নেতাকর্মীরা আত্মবিশ্বাসী হচ্ছে। এর ফলে দল এগিয়ে যাচ্ছে। ভোটারবিহীন সরকারের ভয়াবহ দুঃশাসনের বিরুদ্ধে সাধারণ জনগণকে সম্পৃক্ত করার কাজও এরই মাধ্যমে সম্পূর্র্ণ হচ্ছে। যে কোনো মূল্যে গণতান্ত্রিক আন্দোলন সফল করা হবে। : বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসিচব রুহুল কবির রিজভী  দৈনিক দিনকালকে বলেন, বিভিন্ন জায়গায় সরকারি ও পুলিশের বাধা উপেক্ষা করে হাজার হাজার নেতাকর্মী বিএনপি প্রতিনিধি সভায় যোগ দিয়েছে। বর্তমান দুঃশাসনের কবল থেকে রক্ষা পেতে গ্রাম-গঞ্জে থেকে শুরু করে সকল পর্যায়ে নেতাকর্মীরা আগের চেয়ে বেশি ঐক্যবদ্ধ হয়েছে। : তিনি বলেন, খুলনায় মহানগর ও জেলায় টিম লিডার হিসেবে গত দুই দিন সফর করে নেতাকর্মীদের মাঝে ব্যাপক সাড়া পেয়েছি। এমনকি বিএনপির কর্মসূচিতে সাধারণ মানুষের উপস্থিতিও ছিল লক্ষ্য করার মত। এসব সভা-সমাবেশের মাধ্যমে গণতন্ত্র পুনঃ প্রতিষ্ঠার আন্দোলনের প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে। : গাজীপুর জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কাজী সাইদুল আলম বাবুল দৈনিক দিনকালকে বলেন, গাজীপুরে বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতাদের পদচারণায় তৃণমূল নেতাকর্মীরা অনেক উজ্জীবিত হয়েছে। বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার ডাকে আগামী দিনে যে কোনো আন্দোলন-সংগ্রামে ঐক্যবদ্ধভাবে অংশ নিয়ে কর্মসূচি সফল করতে নেতাকর্মীরা দৃঢ়প্রতিজ্ঞ।
  •