নরওয়ের কালো তালিকায় রামপালের ভারতীয় কোম্পানি

প্রকাশিত: ১২:১৫ পূর্বাহ্ণ, মে ৬, ২০১৭

নরওয়ের কালো তালিকায় রামপালের ভারতীয় কোম্পানি

সুন্দরবনের কাছে রামপালে কয়লা বিদ্যুৎ প্রকল্প নির্মাণের দায়িত্ব পাওয়া ভারতীয় কোম্পানি ‘ভারত হেভি ইলেকট্রিক্যালস’ কোম্পানিকে বিনিয়োগ তালিকা থেকে বাদ দিয়েছে নরওয়ের সবচেয়ে বড় বিনিয়োগ তহবিল। বার্তা সংস্থা রয়টার্স এই খবর জানিয়েছে।

নরওয়ের ৯৩৫ বিলিয়ন ডলারের ওয়েলথ ফান্ড বিশ্বের সবচেয়ে বড় বিনিয়োগ তহবিলগুলোর একটি। কিন্তু এই রাষ্ট্রীয় তহবিল কোন দেশে বা কোম্পানিতে বিনিয়োগ করতে পারবে, তার কিছু নীতিমালা ঠিক করে দিয়েছে নরওয়ের পার্লামেন্ট। এর মধ্যে আছে পরিবেশের জন্য ক্ষতিকর প্রকল্প, পরমাণু অস্ত্র, তামাক এবং এন্টি পার্সোনাল ল্যান্ড মাইনের মতো অস্ত্র প্রস্তুতকারক কোম্পানি।

নরওয়ের সেন্ট্রাল ব্যাংক জানিয়েছে, বাংলাদেশে যে কয়লা বিদ্যুৎ কেন্দ্র হচ্ছে সেটির পরিবেশগত ঝুঁকি নিয়ে উদ্বেগ আছে। বিশ্বের সবচেয়ে বড় ম্যানগ্রোভ বন সুন্দরবন এর ফলে ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ার ঝুঁকি আছে। সেই বিবেচনাতেই ভারত হেভি ইলেকট্রিক্যালসকে তাদের ইনভেস্টমেন্ট পোর্টফোলিও থেকে বাদ দেয়া হয়েছে।

তারা আরো বলেছে, সুন্দরবনের একটা সার্বজনীন পরিবেশগত গুরুত্ব আছে। ভারতীয় কোম্পানিটি সেই সুন্দরবনের মারাত্মক পরিবেশগত ক্ষতির কারণ হতে পারে, যা মোটেই গ্রহণযোগ্য নয়।

যে এথিকস কমিটি নরওয়ের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কাছে ভারত হেভি ইলেকট্রিকসে কালো তালিকাভুক্ত করার সুপারিশ করেছিল, তারা জানিয়েছে এই ভারতীয় কোম্পানির কাছে তারা নানা বিষয় জানতে চেয়েছিল। কিন্তু ভারত ইলেকট্রিক্যালস তাদের বিভিন্ন প্রশ্নের কোন উত্তর দেয়নি।

ভারত হেভি ইলেকট্রিক্যালস লিমিটেডের বেশিরভাগ শেয়ারের মালিক সরকার। নরওয়ের এই সিদ্ধান্তের ব্যাপারে তাদের প্রতিক্রিয়া জানা যায়নি।

সূত্র : বিবিসি বাংলা

  •