সিলেট নগর ভবনে মেয়রের চেয়ারে বসেছিলেন আরিফ

প্রকাশিত: ৪:০৭ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২, ২০১৭

সিলেট নগর ভবনে মেয়রের চেয়ারে বসেছিলেন আরিফ

দীর্ঘ ২৭ মাস পর দায়িত্ব পালনের জন্য মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী সিলেট সিটি কর্পোরেশনের নগর ভবনে পৌঁছেছেন।
রোববার সকাল ১১টা ১১ মিনিটে সিটি নগর ভবনের অস্থায়ী কার্যালয়ে পৌঁছান তিনি।
এসময় সিলেট সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এনামুল হাবীব, কাউন্সিলরৃন্দ ও প্রশাসনিক কর্মকর্তা এবং কর্মচারীরা তাকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান। এ সময় মেয়র আরিফের সাথে তার দলীয় নেতাকর্মীরাও উপস্থিত ছিলেন।
গত ২৩ মার্চ সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর সাময়িক বরখাস্তের আদেশ স্থগিত করে হাই কোর্টের দেওয়া আদেশ বহাল রাখেন সুপ্রীম কোর্টের আপিল বিভাগ। এরপর গত বৃহস্পতিবার স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মোঃ মাহমুদুল আলম স্বাক্ষরিত এক পত্রে বলা হয়, ‘আদালতের আদেশের যথাযথ প্রতিফলনের জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হল।’ এ পত্র প্রাপ্তির তিন দিন পর আজ মেয়রের দায়িত্ব নিয়েছিলেন আরিফুল হক।
২০১৩ সালে ১৫ জুন সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র নির্বাচিত হন বিএনপি’র কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য আরিফুল হক চৌধুরী। পরে সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এএমএস কিবরিয়া হত্যা মামলার এজাহারভূক্ত আসামী হিসেবে ২০১৪ সালের ৩০ ডিসেম্বর হবিগঞ্জের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম আদালতে আত্মসমর্পণ করেন আরিফ। ওইদিন আদালত তার জামিন নামঞ্জুর করে তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করেন। ২০১৫ সালের ৭ জানুয়ারি তাকে মেয়র পদ থেকে সাময়িক বরখাস্ত করে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়।

এদিকে দায়িত্ব পেয়ে নগর ভবনের চেয়ারে বসার তিন ঘন্টার মাথায় সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীকে ফের বরখান্ত করেছে স্থানীয় সরকার মন্ত্রনালয়।
এ সংক্রান্ত একটি চিঠি আজ রোববার বেলা ২টার দিকে সিলেট সিটি কর্পোরেশনে পৌঁছছে বলে সংশ্লিষ্ট একটি সূত্র জানিয়েছে।

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট