জঙ্গিদের অজ্ঞান করতে ক্লোরোফর্ম গ্যাস ছুড়ছে প্যারা-কমান্ডোরা

প্রকাশিত: ৮:০৫ অপরাহ্ণ, মার্চ ২৬, ২০১৭

জঙ্গিদের অজ্ঞান করতে ক্লোরোফর্ম গ্যাস ছুড়ছে প্যারা-কমান্ডোরা

ভেতরে থাকা জঙ্গিদের অজ্ঞান করে গ্রেপ্তার করতে সিলেটের দক্ষিণ সুরমার শিববাড়ি এলাকার ‘আতিয়া মহলের’ জঙ্গি আস্তানায় ক্লোরোফর্ম গ্যাস ছুড়ছে যৌথ বাহিনী।

অভিযান পরিচালনাকারীদের সূত্র থেকে জানা যায, রবিবার বিকেল সোয়া চারটায় গ্যাস ছুড়তে শুরু করেন পুলিশের সোয়াট ও সেনাবাহিনীর প্যারা-কমান্ডোরা।

ধারনা করা হচ্ছে এই পদ্ধতির মধ্য দিয়ে সমাপ্ত হতে যাচ্ছে ‘আতিয়া মহলে’ জঙ্গি বিরোধী অভিযান।যৌথবাহিনীর সঙ্গে জঙ্গিদের গুলি বিনিময়ের শব্দ সবশেষ শোনা যায় বিকেল সোয়া ৪টায়। এরপরই বাড়িটিতে ক্লোরোফর্ম গ্যাস ব্যবহারের সিদ্ধান্তের কথা জানা যায়।

এদিকে, টানা ৩২ ঘণ্টা ধরে চলা জঙ্গিবিরোধী অভিযান ‘অপারেশন টোয়ালাইট’ সম্পর্কে বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকে সাংবাদিকদের ব্রিফ করে জানান, বাড়িটির ভেতরে থাকা দুজন জঙ্গি নিহত হয়েছে। তবে বাড়িটির ভিতরে আরো কয়েকজন ‘জঙ্গি’ থাকতে পারে বলে কর্মকর্তারা ধারণা করছেন।

ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ফখরুল আহসান সাংবাদিকদের জানান- দুজনকে দৌড়ানো অবস্থায় দেখে কমান্ডোরা গুলি ছুড়েছে। দুজনের মৃত্যু নিশ্চিত। ধারণা করছি নিহত দুজনই পুরুষ। আর একজনের পরনে সুইসাইডাল ভেস্ট ছিল। তাদের কাছে প্রচুর বিস্ফোরক আছে, সুইসাইডাল ভেস্টও আছে।

অনেক কৌশল অবলম্বন করে অভিযান চালানো হচ্ছে। কারণ ভেতরে থাকারা জঙ্গিরাও কৌশল পাল্টাচ্ছে। এখনো বাড়িটিতে একাধিক জঙ্গি রয়েছে। তাই বলা যাচ্ছে না, অভিযান কখন শেষ হবে বলেও জানান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ফখরুল আহসান।

এরা কারা বা কোনো গোষ্ঠীর সঙ্গে জড়িত কিনা সে বিষয়ে গোয়েন্দারা জানার চেষ্টা করছে এবং পরে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হবে বলেও জানিয়েছেন সেনাবাহিনীর এই কর্মকর্তা।

সিলেটে সন্দেহভাজন জঙ্গি আস্তানা ঘিরে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর অভিযান চলাকালে শনিবার সন্ধ্যা ও রাতে দু দফা বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় এ পর্যন্ত ছয় জনের মৃত্যু হয়েছে।

বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় আহত হয়েছেন র্যা ব, পুলিশ, সাংবাদিকসহ অনেকেই। গুরুতর আহত র্যা বের দুজন উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাকে ঢাকায় সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে আনা হয়েছে।

  •  

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট