খাদিমপাড়ার দলইপাড়ায় কানাডা প্রবাসী বদরুলের বাড়িতে হামলা, লুটপাট

প্রকাশিত: ৫:৩৫ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০১৭

খাদিমপাড়ার দলইপাড়ায় কানাডা প্রবাসী বদরুলের বাড়িতে হামলা, লুটপাট
সিলেট সদর উপজেলার শাহপরান থানার খাদিমপাড়া ইউনিয়নের পূর্ব দলইপাড়ায় কানাডা প্রবাসী রুহুল আমিন বদরুল ও যুক্তরাজ্য প্রবাসী ড. আহমেদুল কাওসারের বাড়িতে হামলা ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। এসময় সন্ত্রাসীদের হামলায় অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। মঙ্গলবার সকালে এ ঘটনা ঘটে।

আহতদের মধ্যে ড. আহমেদুল কাওসারের শ্বশুর আবদুল মুমিন ও শাশুড়ি রাবেয়া খানমকে সিলেট এমএজি ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সন্ত্রাসীরা নগদ টাকা, স্বর্ণালঙ্কার ও মোবাইলসহ বিভিন্ন জিনিস লুট করে নিয়ে গেছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে একটি মোটরসাইকেল ও একটি ধারালো অস্ত্র জব্দ করেছে।

যুক্তরাজ্য প্রবাসী ড. আহমেদুল কাওসারের অভিযোগ, সিলেট নগরীর শাহপরান নিপবন এলাকার মৃত নুর উদ্দিনের ছেলে কবির আহমদ সিদ্দিকী বাবুল, পূর্ব দলইপাড়ার সাইর মিয়া ও আবু সাঈদের নেতৃত্বে ৭০-৮০ জন সন্ত্রাসী এ হামলা ও লুটপাট চালিয়েছে।

শাহী ঈদগাহের হাজারীবাগের ৩০/সি এলাকার বাসিন্দা ড. আহমেদুল কাওসার জানান, শাহপরান থানার খাদিমপাড়া ইউনিয়নের পূর্ব দলইপাড়ায় ৩২ শতক জায়গা কিনে ভোগদখল করে থাকা অবস্থায় এই জায়গা দখল করতে মরিয়া হয়ে ওঠে স্থানীয় কবির আহমদ সিদ্দিকী বাবুল, সাইর মিয়া ও আবু সাঈদ গং। তারা একাধিকবার এ জায়গা দখলের চেষ্টা চালিয়েছে। এমনকি ২০১৫ সালের নভেম্বরে রাতের আঁধারে ওই জায়গা দখল করার পাঁয়তারা করে ওই গং।

এলাকার মুরব্বিগণ ও চেয়ারম্যানের হস্তক্ষেপে ওই সময় তাদের পাঁয়তারা ব্যর্থ হয়। বিষয়টি খাদিমপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান আফসর আহমেদকে জানিয়ে প্রতিকার চান ড. আহমেদুল কাওসার। চেয়ারম্যান আফসর পর পর ৪ বার কবির আহমদ সিদ্দিকীকে নোটিশ প্রদান করেন। কিন্তু কোনো নোটিশেই সাড়া দেননি কবির। চেয়ারম্যান ও মুরব্বিগণ জায়গার কাগজপত্র পর্যালোচনা করে স্থানীয় শালিশে প্রবাসীদের পক্ষে রায় প্রদান করেন।

ড. আহমেদুল কাওসার অভিযোগ করে বলেন, গত রবিবার কবির আহমদ সিদ্দিকী বাবুল, সাইর মিয়া ও আবু সাঈদ গং পূর্ব দলইপাড়াস্থ ওই জায়গা দখল করতে যায়। তখন স্থানীয়দের সহযোগিতায় তাদের প্রতিহত করা হয়। ওই সময় কবির আহমদ সিদ্দিকী শিগগিরই ওই জায়গা এবং তার (কাওসার) বাড়ি দখল করার হুমকি দিয়ে যান। মঙ্গলবার সকালে কবির আহমদ সিদ্দিকী বাবুল, সাইর মিয়া ও আবু সাঈদের নেতৃত্বে ৭০-৮০ জন সন্ত্রাসী ১০টি মোটরসাইকলে, ১০টি সিএনজি অটোরিকশা ও ৩টি লেগুনা দিয়ে পূর্ব দলইপাড়ায় তার (কাওসার) বাড়িতে হামলা চালায়।

এসময় সন্ত্রাসীরা দলইপাড়াস্থ উক্ত বাসায় বসবাসরত ড. কাওসারের শ্বশুর ইউসিবিএল ব্যাংকের সাবেক অ্যাসিসটেন্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট আবদুল মুমিন, শাশুড়ি রাবেয়া খানম, বাড়ির কেয়ারটেকার মাসুম মিয়া ও তার স্ত্রী নেহার বেগম, কেয়ারটেকার কবির মিয়া, রেবা বেগম, কয়েকজন প্রতিবেশীসহ ১০-১২ জনকে মারধর করে আহত করে। গুরুতর আহত অবস্থায় আবদুল মুমিন ও রাবেয়া খাতুনকে ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের হামলায় টিনের বাড়িঘর তছনছ করে ঘরে থাকা টিভি, ফ্রিজ, ফ্যান, খাটসহ বিভিন্ন আসবাবপত্র ভাঙচুর করে।

যুক্তরাজ্য প্রবাসীর বাড়িতে হামলার খবর পেয়ে স্থানীয় লোকজন এবং শাহপরান থানা পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে ছুটে যায়। পুলিশের ধাওয়ায় সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। তবে যাওয়ার আগে বাড়ি থেকে নগদ এক লাখ টাকা, স্বর্ণালঙ্কার ও কয়েকটি মোবাইল লুট করে নিয়ে যায়।

শাহপরান থানার উপ-পরিদর্শক আবু রায়হান বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। তবে তার আগেই হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। তবে ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ একটি মোটরসাইকেল (সিলেট-হ-১৩-৯২২২) ও একটি ধারালো অস্ত্র জব্দ করেছে।

এ ব্যাপারে শাহপরান থানার এসি মো. ইসমাইল পিপিএম বার বলেন, ইতিপূর্বে উভয়পক্ষকে শান্তি বজায় রাখার জন্য নোটিশ দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু কবির আহমদ সিদ্দিকী বাবুল তার লোকজন নিয়ে বাড়িঘর ভাঙচুর ও কয়েকজনকে আহত করেছে। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট