সিলেট জেলা পরিষদের জমিয়তের তালাবার কেন্দ্রীয় কাউন্সিল অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত: ৮:৪৭ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২৮, ২০১৭

সিলেট জেলা পরিষদের জমিয়তের তালাবার কেন্দ্রীয় কাউন্সিল অনুষ্ঠিত

আসলাফ আকাবিরের সঠিক আদর্শ বাস্তবায়নে
জমিয়তে তালাবাকে আত্মনিয়োগ করতে হবে
———– আল্লামা আলিমুদ্দীন দুর্লভপুরী

জমিয়তে উলামা বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় আমীর শায়খুল হাদিস আল্লামা আলিমুদ্দীন দুর্লভপুরী বলেছেন, জমিয়তে তালাবা হচ্ছে জমিয়তে উলামার একটি অঙ্গ সংগঠন। সুতরাং জমিয়তে তালাবাকে এখলাছ ও লিল্লাহিয়াতের সাথে পদ-পদবীর লোভ বাদ দিয়ে আসলাফ আকাবিরের সঠিক আদর্শ বাস্তবায়নে মাঠে ময়দানে কাজ করতে হবে। আমীরে জমিয়ত বলেন, আমরা সর্বদা হক্ব ও হক্কানিয়তের কথা বলতেই থাকবো। কারো চোখ রাঙ্গানিকে ভয় করবো না। আল্লামা দুর্লভপুরী আরো বলেন, দারুল উলুম দেওবন্দের সঠিক উত্তরসুরী হিসেবে আমাদেরকে অগ্রণী ভ‚মিকা পালন করতে হবে। তাহলেই আমরা হবো সফলকাম। তিনি বলেন, সকল জালিমশাহীর বিরুদ্ধে হক্বের আযান দিতে আমরা কোন দিন পিছপা হবো না। দুলর্ভপুরী বলেন, আজ দ্বীন ইসলামকে পৃথিবী থেকে নিশ্চিহ্ন করে দেওয়ার জন্য সকল তাগুতি শক্তি ঐক্যবদ্ধ। ওদের সকল ষড়যন্ত্রের দাঁতভাঙ্গা জবাব দিতে জমিয়তে তালাবাকে সর্বদা প্রস্তুত থাকতে হবে। তিনি ফেসবুক ব্যবহারকারী সকল তালাবাদের উদ্দেশ্যে বলেন, সঠিক নিউজ পরিবেশন করতে হবে। কোন ক্রমে গালিগালাজ করা চলবে না। কোন পরিচিতি আইডি থেকে গালিগালাজের কোন নিউজ প্রকাশিত হলে কেন্দ্রীয় কমিটি যথাযথ ব্যবস্থা নিবে।
তিনি গতকাল ২৮ জানুয়ারী শনিবার বিকেলে সিলেট জেলা পরিষদ মিলনায়তনে জমিয়তে তালাবা বাংলাদেশের কেন্দ্রিয় কাউন্সিল অধিবেশনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।
জমিয়তে তালাবার কেন্দ্রীয় সভাপতি মাওলানা জয়নুল আবেদীনের সভাপতিত্বে ও সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা ইয়াহইয়া শহীদের পরিচালনায় কাউন্সিল অধিবেশনে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জমিয়তে উলামার কেন্দ্রীয় মহাসচিব মাওলানা নজরুল ইসলাম তোয়াক্কুলী, সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা ক্বারী হারুনুর রশীদ চতুলী, আইন বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট মোহাম্মদ আলী, সিলেট জেলা জমিয়তে উলামার সাধারণ সম্পাদক মাওলানা আবুল হোসেন চতুলী, মহানগর জমিয়তে উলামার সভাপতি মাওলানা তহুরুল হক জকিগঞ্জী, জমিয়তে তালাবার কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি হাফিজ মাওলানা এহছান এলাহী, যুগ্ম সম্পাদক মাওলানা বদরুল ইসলাম আল ফারুক, প্রচার সম্পাদক মাওলানা রফি উদ্দিন শাহীন। বক্তব্য রাখেন মাওলানা মাসুক আহমদ, হাফিজ ইমদাদ উল্লাহ মারজান, হাফিজ দেলওয়ার হোসেন, মাওলানা আরিফ রব্বানী, মাওলানা আব্দুল কাদির, হাফিজ ফরিদ আহমদ, আসাদ আহমদ, জুনায়েদ আল হাবীব, আব্দুল্লাহ জুনেদ, আলী আহমদ, বিলাল আহমদ, বশির আহমদ, মাওলানা নুরুল ইসলাম, কে.এম জাকির হোসেন, আলীম উদ্দিন, মাওলানা আশিকুর রহমান, মাওলানা আব্দুল্লাহ শাকির, নোমান ইবনুল আমিন, হাফিজ সুফিয়ান, হাফিজ সিদ্দিক বিন মোহাম্মদ, হাফিজ আব্দুল করিম, হাফিজ ইয়াহইয়া মাহমুদ, খোবায়েব আহমদ, হিফজুর রহমান, নজরুল ইসলাম, আব্দুস সালাম, আব্দুল হালিম, হাফিজ ইসমাইল। শুরুতে পবিত্র কুরআন থেকে তেলাওয়াত করেন হাফিজ ছালিম আহমদ ও হাফিজ মারুফ আহমদ। কাউন্সিলে বার্ষিক প্রতিবেদন পেশ করেন কেন্দ্রীয় জমিয়তের তালাবার সাধারণ সম্পাদক মাওলানা হারিছ উদ্দিন।
কাউন্সিল অধিবেশনে সর্বসম্মতিক্রমে মাওলানা জয়নুল আবেদীনকে সভাপতি, হাফিজ সিদ্দিক বিন মোহাম্মদকে সহ-সভাপতি, আছাদ আহমদকে সাধারণ সম্পাদক, ছালিম আহমদকে যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, নজরুল ইসলামকে সাংগঠনিক সম্পাদক, সাইফুর রহমানকে অর্থ সম্পাদক, জুনায়েদ আল হাবীবকে প্রচার সম্পাদক, ইয়াহইয়া মাহমুদকে অফিস সম্পাদক করে ৬১ সদস্য বিশিষ্ট কেন্দ্রীয় জমিয়তে তালাবার কমিটি ঘোষণা করেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় সভাপতি মাওলানা জয়নুল আবেদীন।
কাউন্সিল অধিবেশনে জমিয়তে উলামার কেন্দ্রীয় আমীর এবং মহাসচিব জমিয়তুল আনছার এর কেন্দ্রীয় আহবায়ক কমিটিতে আরো ৭ সদস্য বিশিষ্ট আহবায়কের নাম ঘোষণা করেন। তারা হচ্ছেন যথাক্রমে- মাওলানা হারিছ উদ্দিন, মাওলানা বদরুল ইসলাম আল ফারুক, মাওলানা ইয়াহইয়া শহীদ, মাওলানা আরিফ রব্বানী, মাওলানা রফি উদ্দিন শাহীন, মাওলানা দেলওয়ার হোসেন জামিল ও হাফিজ মাওলানা এহছান এলাহী। -বিজ্ঞপ্তি

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট