বিশ্বনাথে নিখোঁজ মা-মেয়ের সন্ধান মিলেছে

প্রকাশিত: ১১:০৮ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৪, ২০১৬

বিশ্বনাথ প্রতিনিধি: সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার চানসির কাপন এলাকায় বসবাসকারী নিখোঁজ মা ও মেয়ের সন্ধান পাওয়া গেছে। সাতদিন পর শনিবার সকালে সিলেট নগরী থেকে তাদের পাওয়া যায় বলে থানা পুলিশ জানিয়েছে।
নিখোঁজ মেহেরুন নেছা (৩৬) ও মেয়ে লুৎফা বেগম (৬) সুনামগঞ্জ জেলার জামালগঞ্জ উপজেলার রূপাবালি গ্রামের জহুরুল ইসলামের স্ত্রী ও সন্তান। তারা দীর্ঘদিন ধরে বিশ্বনাথের পশ্চিম চানসির কাপন এলাকায় বসবাস করছেন। নিখোঁজের ঘটনায় বুধবার বিশ্বনাথ থানায় জিডি (নং ৮৪৪) করেছেন জহুরুল ইসলাম। অবশেষে তাদের সন্ধান পাওয়া যায়।
মেহেরুন নেছা স্বামী জহরুল ইসলামের বরাত দিয়ে বিশ্বনাথ থানার এসআই কল্লোল গোস্বামী শনিবার রাত সাড়ে নয়টায় সাংবাদিকদের বলেন, নিখোঁজ মা-মেয়ের সন্ধান পাওয়া গেছে। রোববার সকালে তারা থানায় হাজির হবেন বলে তিনি জানান।
জহুরুল ইসলাম তার স্ত্রী-মেয়ের সন্ধান পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, শনিবার সকালে সিলেট নগরীর কদমতলী বাস ষ্টেশন এলাকায় তাদের পাওয়া যায়।
প্রসঙ্গত, ‘মেহেরুন নেছা তার ছোট মেয়েকে নিয়ে গত ১৮ ডিসেস্মবর সকাল ১০টার দিকে বিশ্বনাথ থেকে ডাক্তার দেখানোর কথা বলে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতলের উদ্দেশ্যে রওনা হন। কিন্তু পরে আর বাড়ি ফেরেননি। ডাক্তার দেখেনো শেষে বাড়ি না আসায় ওইদিন বিকাল ৩ টার দিকে স্ত্রীর মোবাইলে ফোন করেন স্বামী জহুরুল ইসলাম। কিন্তু রিসিভ না করে কেটে দেওয়া হয়। তিনবার কল করার পর মোবাইল বন্ধ হয়ে যায়।

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট