‘আয়নায় নিজেকে দেখুন, চেহারা শুধু সাজুগুজু করার জন্যই নয়’

প্রকাশিত: ১২:৩০ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৮, ২০১৬

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগকে ভোট দিলেই উন্নয়নের ধারা অব্যাহত থাকবে, বলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। যারা নির্বাচনে পরাজিত, আন্দোলনেও পরাজিত তাদেরকে মানুষ কেন ভোট দিবে?

শনিবার বিকেলে বিজয় দিবস উপলক্ষে রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশনে আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বিএনবি নেত্রী খালেদা জিয়া ২০০১ সালে গ্যাস বিক্রির চুক্তিতে ক্ষমতায় আসেন। আমেরিকার কাছে গ্যাস বিক্রির চুক্তিতে খালেদা জিয়ার বিএনপি-জামায়াত জোট ক্ষমতায় আসে। তবে আল্লাহ জন বুঝে ধন দেয়। আমি জানতাম, তারা গ্যাস পাবে না তো, দেবে কী!’

খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, ‘আয়নায় চেহারা দেখুন, চেহারা শুধু সাজুগুজু করার জন্যই নয়। এই দেশের স্বার্থহানি হোক, অন্তত আমার কাছে এটা হতে পারে না। আমার কাছে ক্ষমতাটা বড় না, দেশের মানুষ বড়।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমেরিকার প্রেসিডেন্ট বিভিন্ন অফার দেন, আমি স্পষ্টভাবে বলে আসি, দেশের মানুষের সম্পদ ক্ষমতার লোভে বিক্রি করবো এমন মানুষ আমি নই।’

শেখ হাসিনা আরো বলেন, ‘আমরা গণতন্ত্র এনেছি, গণতন্ত্র অব্যাহত রাখবো। গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত থাকলেই মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়িত হবে।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘খালেদা জিয়া নির্বাচনে অংশ নেননি। কারণ, তিনি জানতেন যে, ভোট পাবেন না। আমরা যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করছি। তাই যুদ্ধাপরাধীদের পৃষ্ঠপোষক বিএনপি ভোট পাবে না জেনেই তারা নির্বাচন বর্জন করে।’

তিনি বলেন, ‘যারা নির্বাচন করার দায়িত্ব নিয়ে নির্বাচন করতে পারে না তাঁরা কীভাবে উপদেশ দেয় বুঝি না। রাষ্ট্রপতি সব দলের সঙ্গে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নিবেন। অবৈধ ক্ষমতা দখলকারীদের মুখে গণতন্ত্রমানায় না।’

তিনি এও বলেন, ‘আওয়ামী লীগ জাতির কাছে সঠিক ইতিহাস তুলে ধরছে। আগামীতে কেউ আর ইতিহাস বদলাতে পারবে না। স্বাধীনতার ঘোষণা বিতর্কে ষড়যন্ত্রকারীরাই লাভবান হয়েছে। বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর দেশে যেভাবে ইতিহাস বিকৃত করা হয়েছে, পৃথিবীর কোথাও এমন নজির নেই।

  •  

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট