প্রধানমন্ত্রীর বিমানে ত্রুটি : ৩ প্রধান প্রকৌশলী বরখাস্ত

প্রকাশিত: ১১:৩৫ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৪, ২০১৬

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বহনকারী বিমানের ইঞ্জিনের নাট-বল্টু লুজের ঘটনায় গঠিত তদন্ত কমিটির দেয়া প্রতিবেদনের ভিত্তিতে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের প্রকৌশল বিভাগের তিন প্রধান প্রকৌশলীকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে বাংলাদেশ বিমান।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ক্যাপ্টেন (অব.) মু আ মোসাদ্দিক আহমেদ বুধবার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

 সোমবার রাতে বিমানের বোর্ড সাব-কমিটির বৈঠকে তদন্ত কমিটির চূড়ান্ত প্রতিবেদনের ভিত্তিতে তাদের বহিষ্কার করা হয়।

 বরখাস্ত হওয়া তিন প্রকৌশলী হলেন- প্রকৌশলী দেবেশ চৌধুরী (প্রডাকশন), এসকে সিদ্দিক (কোয়ালিটি) ও বেলাল হোসেন (সিস্টেম এন্ড মেইনটেন্যান্স)।

সোমবার রাতে বিমানের ক্যাপ্টেন ফজল মাহমুদ চৌধুরীর নেতৃত্বে গঠিত এ সংক্রান্ত তদন্ত কমিটির পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদন বিমানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ক্যাপ্টেন মোসাদ্দেক আহমেদের কাছে জমা দেয়া হয়। ওই প্রতিবেদনের ভিত্তিতে তিন প্রকৌশলীকে তাৎক্ষণিকভাবে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। এরপর ওই প্রতিবেদন বিমান মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে।

এর আগে তদন্ত কমিটির প্রাথমিক তদন্ত প্রতিবেদনের ভিত্তিতে প্রতিষ্ঠানটির পাঁচ প্রকৌশলসহ ছয়জনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। এরা হলেন- প্রকৌশল কর্মকর্তা এস এম রোকনুজ্জামান, সামিউল হক, মিলন চন্দ্র বিশ্বাস,  লুৎফুর রহমান, জাকির হোসাইন এবং টেকনিশিয়ান সিদ্দিকুর রহমান।

উল্লেখ্য, গত ২৭ নভেম্বর হাঙ্গেরি যাওয়ার পথে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বহনকারী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি বোয়িং ৭৭৭ বিমান যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে তুর্কমেনিস্তানের রাজধানী আশখাবাতে জরুরি অবতরণ করে। ত্রুটি মেরামতের করে সেখানে চার ঘণ্টা অনির্ধারিত যাত্রাবিরতি পর ওই উড়োজাহাজেই প্রধানমন্ত্রী বুদাপেস্টে পৌঁছান।

তবে ওই ত্রুটি মানবসৃষ্ট কারণে হয়েছিল বলে সংসদে জানান বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন। সেটি অবহেলা না কি নাশকতা ছিল, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলেও সে সময় জানান তিনি।

  •