গণতন্ত্রের আড়ালে জঙ্গিরক্ষার রাজনীতি করছে খালেদা : তথ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত: ৮:৫৮ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১১, ২০১৬

তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, ‘গণতন্ত্রের জন্য মায়া কান্নার আড়ালে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া জঙ্গি রক্ষার রাজনীতি করছেন’।

মেক্সিকোতে অনুষ্ঠিত একাদশ ইন্টারনেট গভর্নেন্স ফোরামে যোগদানশেষে গতকাল দেশে ফিরেই রবিবার দুপুরে নগরীর শহীদ কর্নেল তাহের মিলনায়তনে জঙ্গি-সঙ্গী বর্জন ও বিচারে আইনি কাঠামো গড়ে তোলার রাজনৈতিক প্রস্তাবের ওপর জাসদ ঢাকা মহানগর সমন্বয় কমিটি আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ সব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘জঙ্গি নির্মূল অভিযানের পক্ষে মানুষ একাট্টা, কিন্তু খালেদা জিয়া এখন পর্যন্ত জঙ্গির সঙ্গীত্ব ত্যাগ করেননি।’

হাসানুল হক ইনু বলেন, ‘শুধু জঙ্গিই নয়, বাংলাদেশের রাজনীতিতে রাজাকার, যুদ্ধাপরাধী, আগুনসন্ত্রাসীসহ অপশক্তি টেনে আনা ও হত্যা-খুন-সাম্প্রদায়িকতা-আগুনসন্ত্রাসসহ সব অপকর্মের রাজনীতির হোতা জিয়া-খালেদা-বিএনপি।’

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশকে জঙ্গি মুক্ত করতে হলে জঙ্গি-সঙ্গী খালেদা জিয়াকে রাজনৈতিকভাবে বর্জন, একঘরে ও বিচারের মুখোমুখি করতে হবে, জঙ্গি উৎপাদন-পুনরুৎপাদনের কারখানা চিরতরে বন্ধ করে দিতে হবে’।

ঢাকা মহানগর জাসদের সমন্বয়ক মীর হোসাইন আখতারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন- জাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি ইকবাল হোসেন খান, অ্যাডভোকেট হাবিবুর রহমান শওকত, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নাদের চৌধুরী, ঢাকা মহানগর উত্তর জাসদের সভাপতি সফি উদ্দিন মোল্লা, ঢাকা মহানগর পূর্ব জাসদের সভাপতি শহিদুল ইসলাম, জাতীয় যুব জোটের সভাপতি রোকনুজ্জামান রোকন, জাসদের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. নুরুন্নবী, ঢাকা মহানগর পশ্চিম জাসদের সভাপতি মাইনুর রহমান, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ জাসদের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মুহিবুর রহমান মুহির, ঢাকা মহানগর উত্তর জাসদের সাধারণ সম্পাদক ইদ্রিস আলী, শ্রমিক নেতা কাজী সিদ্দিকুর রহমান ও বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি সামছুল ইসলাম সুমন প্রমুখ।

  •