সিলেটে বিদ্যুৎ ও জ্বালানী সপ্তাহ উদযাপন উপলক্ষে র‌্যালী

প্রকাশিত: ৮:২১ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৭, ২০১৬

সিলেটের জেলা প্রশাসক জয়নাল আবেদীন বলেছেন, বর্তমান সরকার জনবান্ধব সরকার। দেশের জনগণের জীবন-মান উন্নয়নে নিরলস কাজ করে যাচ্ছে। বিদ্যুৎ ও জ্বালানী ব্যবহারে আমাদেরকে সাশ্রয়ী হতে হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষণা বাংলাদেশকে ২০২১ সালের মধ্যে মধ্যম উন্নয়নশীল রাষ্ট্রে পরিণত করতে আমাদের সকলকে দায়িত্ব সম্পর্ক সচেতন হতে হবে। সরকারী সম্পদ ব্যবহারে আরো বেশি সচেতনতা অবলম্বন করতে হবে।
তিনি বুধবার সকালে বিদ্যুৎ ও জ্বালানী সপ্তাহ ২০১৬ উপলক্ষে নগরীর রিকাবীবাজারস্থ মোহাম্মদ আলী জিমনেশিয়াম প্রাঙ্গণে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড বিতরণ অঞ্চল সিলেট আয়োজিত র‌্যালী উদ্বোধন কালে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছিলেন। প্রধান প্রকৌশলী রতন কুমার বিশ্বাসের সভাপতিত্বে সভায় তিনি বিদ্যুতের অপব্যবহারে জনসাধারণকে সচেতনতার আহ্বান জানিয়ে বলেন, বিদ্যুৎ আমাদের রাষ্ট্রীয় সম্পদের রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব আমাদের সকলের।
বিদ্যুৎ ও জ্বালানী সপ্তাহ ২০১৬ উপলক্ষে বিতরণ অঞ্চল সিলেটের উদ্যোগে বুধবার সকাল ১০ টায় রিকাবীবাজারস্থ সিলেট জেলা স্টেডিয়াম প্রাঙ্গণ থেকে জেলা প্রশাসক মো. জয়নাল আবেদীন ও প্রধান প্রকৌশলী রতন কুমার বিশ্বাসের নেতৃত্বে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালী বের করা হয়। র‌্যালীটি নগরীর প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে বাগবাড়ীস্থ বিদ্যুৎ ভবনে গিয়ে শেষ হয়।
এর আগে জেলা প্রশাসক মো. জয়নাল আবেদীন বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে বিদ্যুৎ সপ্তাহ এর উদ্বোধন করেন। পরে নবায়নযোগ্য জ্বালানী, জ্বালানী দক্ষতা, জ্বালানী সংরক্ষণ শীর্ষক বক্তৃতা প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতণ করেন প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক মো. জয়নাল আবেদীন। পরে তিনি স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচির উদ্বোধন করেন।
এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন নির্বাহী প্রকৌশলী নজরুল ইসলাম, আব্দুল কাদির, জিন্নাত আলী, দেড়শ’ মেগাওয়াট পাওয়ার প্লান্টের তত্ত¡াবধায়ক প্রকৌশলী রণধা প্রসাদ রায়, ২০ মেগাওয়াট পাওয়ার প্লান্টের নির্বাহী প্রকৌশলী মাহফুজুর রহমান, বিউবো উপ-পরিচালক শ্যামল চন্দ্র, আব্দুস সাত্তার, সিলেট ১৩২/৩৩ গ্রীড উপকেন্দ্রের ইনচার্জ খন্দকার মহিউদ্দিন, অ্যাসিস্টেন্ট ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেনসহ পিজিসিবি ও সিলেট অঞ্চলের বিদ্যুৎ কেন্দ্র, সিবিএ নেতৃবৃন্দসহ সকল স্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা ।

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট