চিতায় নয়, কেন কবরে সমাহিত করা হলো জয়ললিতাকে?

প্রকাশিত: ৮:১১ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৭, ২০১৬

নয়াদিল্লি : ভারতের তামিলনাড়ুর সদ্য প্রয়াত মূখ্যমন্ত্রী জয়ললিতা আয়েঙ্গার সম্প্রদায়ের। আয়েঙ্গাররা কট্টরপন্থী হিন্দু ব্রাহ্মণ, যাদের শেষকৃত্য হয় কাঠের চিতায়। কিন্তু জয়ললিতাকে কবর দেওয়ার সিদ্ধান্ত কেন নিল রাজ্য সরকার?

শেষকৃত্যের দায়িত্বে থাকা সরকারি এক মুখপাত্রের জানান, ‘আমাদের কাছে আম্মা শুধু আয়েঙ্গার নন। যে কোনো জাত-ধর্ম, সম্প্রদায়ের ঊর্ধ্বে তিনি এক মহান মানুষ। যেমন ছিলেন পেরিয়ার, আন্না দুরাই বা এম জি রামচন্দ্রন। এই সব দ্রাবিড় নেতাদের দেহ সমাহিত করা হয়েছে। আম্মার ক্ষেত্রেও তাই এই সিদ্ধান্ত।’

ওই কর্মকর্তা জানান, জনপ্রিয় নেতা-নেত্রীদের দেহ পোড়ার দৃশ্য খুব মনোরম নয়। তাই চন্দন কাঠ ও গোলাপ জল দিয়ে তাদের কবরস্থ করা হয়। মঙ্গলবার যেমন করা হল জয়ললিতাকে। তবে অন্য তিন দ্রাবিড় নেতার মতো নিরীশ্বরবাদী ছিলেন না জয়া। পুজা-অর্চনা করতেন।

অনেকে বলছেন, আসল কারণ এটা নয়। মুখাগ্নিতে দরকার কোনো পরিজনের। কিন্তু একমাত্র ভাইয়ের ছেলে দীপা জয়কুমারকে কাছেধারে ঘেঁষতে দিতে রাজি নন জয়ললিতার ঘনিষ্টজনেরা।

-আনন্দবাজার অবলম্বনে

  •