মিয়ানমারে মুসলিম নির্যাতন ও দূতাবাস বন্ধ করতে হবে : আল্লামা নুর হোসাইন কাসেমী

প্রকাশিত: ১১:১৬ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৪, ২০১৬

জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ এর মহাসচিব ও হেফাজতে ইসলাম ঢাকা মহানগর আমির আল্লামা নুর হোসাইন কাসেমী বলেছেন, পৃথিবীতে একমাত্র ইসলামই হচ্ছে শান্তি ও মানবতার ধর্ম। তাই শান্তিময় সমাজ বিনির্মানে ইসলামী অনুশাসনের বিকল্প নেই। তিনি মিয়ানমারে রাষ্ট্রিয় সন্ত্রাসের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন, অভিলম্বে রোহিঙ্গাদের উপর নির্যাতন বন্ধে জন্য বাংলাদেশ সরকারকে উদ্যোগ নিতে হবে। একই সাথে বাংলাদেশের সীমান্তে আগত সকল অসহায় রোহিঙ্গা মুসলিমদের আশ্রয় দেয়া সরকারের মানবিক দায়িত্ব। বার্মায় মুসলিম হত্যাযঞ্জ বন্ধ না করলে, বাংলাদেশসহ মুসলিম বিশ্বে মায়ানমারের দুতাবাস বন্ধ করে দেয়া উচিত।
তিনি গতকাল ২৪ নভেম্বর বৃহস্পতিবার সুনামগঞ্জ বাসষ্ট্যান্ডে যুব জমিয়ত বাংলাদেশ সুনামগঞ্জ জেলা আয়োজিত বিশাল উক্বাবে রাসুল (স) সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন।
জেলা যুবজমিয়তের সভাপতি মাওলানা আখতারুজ্জামান এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন জমিয়তের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সভাপতি, সাবেক মন্ত্রী মুফতি মুহাম্মদ ওয়াক্কাস, সিনিয়র সহ-সভাপতি শায়খুুল হাদীস আল্লামা তাফাজ্জুল হক হবিগঞ্জী, মাওলানা আব্দুর রব ইউসুফী, যুগ্ম মহাসচিব সাবেক এমপি মাওলানা শাহীনূর পাশা চৌধুরী এডভোকেট, মাওলানা মঞ্জুরুল ইসলাম আফিন্দী, মাওলানা বাহাউদ্দীন যাকারিয়া, মাওলানা তাফাজ্জুল হক আজিজ, কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা উবায়দুল্লাহ ফারুক, মাওলানা আব্দুল মালিক চৌধুরী, সৈয়দ মাওলানা শামিম আহমদ, মাওলানা আনোয়ারুল ইসলাম, তাবলীগ জামাত সুনামগঞ্জের আমির মাওলানা আনোয়ার হোসাইন, জমিয়তের কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক মাওলানা জয়নুল আবেদীন, মাওলানা সাজিদুর রহমান, মাওলানা সৈয়দ আব্দুন নুর, মাওলানা হাজি ইমদাদুল্লাহ কাতিয়া, প্রিন্সিপাল মাওলানা মাহমুদুল হাসান, মাওলানা আফসার উদ্দীন, যুব জমিয়তের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি দক্ষিণ সুনামগঞ্জের ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা তৈয়্যিবুর রহমান চৌধুরী, প্রচার সম্পাদক মুহাম্মদ রুহুল আমিন নগরী, রেঙ্গা মাদরাসার মুহাদ্দিস মাওলানা ইকবাল বিন হাশিম, মাওলানা হাম্মাদ আহমদ, মাওলানা মুশতাক আহমদ গাজিনগরী, মাওলানা আলীনুর, জামালগঞ্জ উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান রশীদ আহমদ, মাওলানা আবুল ফজল, মাওলানা শায়েখ আব্দুল কাদির, মাওলানা আব্দুর রকিব, মাওলানা রুকন উদ্দীন।
জেলা যুব জমিয়তের সেক্রেটারী মাওলানা আব্দুল হাই ও মাওলানা আরশাদ নোমানের যৌথ পরিচালনায় সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন মাওলানা নাজিমুদ্দিন, মাওলানা সাজিদুর রহমান, মাওলানা জমিরুদ্দীন, মাওলানা আব্দুল ওয়াহ্হাব, মাওলানা সদরুল আমীন, মাওলানা আব্দুল হাফিজ, মাওলানা মুহিউদ্দীন কাসেমী, মাওলানা মোহাম্মদ আলী, মাওলানা সালিম কাসেমী, যুবনেতা মাওলানা শোয়াইব আহমদ, মাওলানা এরশাদ খান আল-হাবীব, সৈয়দ উবায়দুর রহমান, মুফতি মুতিউর রহমান, যুব নেতা রেজওয়ান আহমদ, মুতিউর রহমান, আব্দুল হাফিজ, ছাত্র নেতা তাহা হোসাইন, উবায়দুল হক প্রমুখ। দলীয় সংগীত পরিবেশন করেন যুব জমিয়তের কেন্দ্রীয় সদস্য হাফিজ আব্দুল করিম দিলদার।
সম্মেলনে সাবেক মন্ত্রী মুফতি ওয়াক্কাস বলেন, আমাদের পার্শ্ববর্তী রাষ্ট্র মায়ানমারে চলছে ইতিহাসের ন্যক্কারজনক মুসলিম গণহত্যা। রোহিঙ্গাদের উপর বর্বরোচিত হামলায় বিশ্ববিবেক নিরব। তিনি জাতিসংঘের পক্ষ থেকে হামলা বন্ধে কার্যকর উদ্যোগ গ্রহন করার জন্য জোর দাবী জানান।
আল্লামা নুর হোসাইন কাসেমী বলেন, সকল তন্ত্রমন্ত্র দেশে শান্তি প্রতিষ্টায় ব্যর্থ প্রমাণিত হয়েছে। বাংলাদেশে শান্তি ও সমৃদ্ধির একমাত্র পথ ইসলামি অনুশাসন বাস্তবায়ন। তিনি শান্তি ও ইনসাফ ভিত্তিক রাষ্ট্রগঠনে জমিয়তের হাতকে শক্তিশালী করার আহবান জানিয়ে বলেন, বৃটিশ বিতাড়িত করা থেকে দেশ ও জাতির দুর্দিনে কান্ডারীর ভূমিকা পালন করে আসছে জমিয়ত। তিনি সুখী সমৃদ্ধশালী দেশ গঠনে সবাইকে উক্বাবে রাসুল (স)’র পতাকার নিচে আশ্রয় গ্রহন করার আহবান জানান এবং আজ শুক্রবার দেশব্যাপী রোহিঙ্গা মুসলিম গণহত্যা বন্ধের দাবীতে জমিয়তের বিক্ষোভ সমাবেশ সফল করার জন্য দলীয় নেতাকর্মী সহ সর্বস্তের তৌহিদী জনতার প্রতি আহবান জানান। বিজ্ঞপ্তি

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট