কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ নেতার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার, সড়ক অবরোধ

প্রকাশিত: ১:৩৪ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২১, ২০১৬

চট্টগ্রাম : ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সহ-সম্পাদক ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের একাংশের নিয়ন্ত্রক হিসেবে পরিচিত দিয়াজ ইরফান চৌধুরীর (২৬) ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। রবিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ২ নম্বর গেট এলাকার ভাড়া বাসা থেকে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

পরিবারের দাবি, দিয়াজকে হত্যা করে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্র জানায়, চারতলা ভবনের দ্বিতীয় তলার একটি ফ্ল্যাটে ভাড়া থাকে দিয়াজের পরিবার। রবিবার দিয়াজের মা বাসায় ছিলেন না। দিয়াজের কক্ষের জানালা দিয়ে তাঁর ঝুলন্ত লাশ দেখতে পেয়ে স্থানীয় লোকজন পুলিশকে খবর দেন। পরে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে।

তার বাড়ি ফটিকছড়ি উপজেলার পাইন্দংয়ে। দিয়াজের মামা রাশেদ চৌধুরী বলেন, বাসায় কেউ ছিল না। এই সুযোগে তাঁর ভাগনেকে হত্যা করে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে লাশ ঝুলিয়ে রেখেছে প্রতিপক্ষের লোকজন।

দিয়াজের বড় বোন জুবাইদা সরোয়ারও দাবি করেন, তাঁর ভাইকে হত্যা করে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি এবং দিয়াজের প্রতিবেশী মো. মামুন জানান, দোতলার বাসায় নিজের কক্ষে সিলিংয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় তাকে দেখা গেছে। সে আত্মহত্যা করার মতো ছেলে নয়। মামুন দাবি করেন, কিছুদিন আগে ছাত্রলীগের অন্তর্কোন্দলে দিয়াজসহ কয়েকজনের বাড়িতে হামলা ও লুটপাটের ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে তাদের পরিবারগুলোতে এক ধরনের আতঙ্ক তৈরি হয়েছিল। এর জেরে অন্য কোনো ঘটনা ঘটেছে কি না, তা খতিয়ে দেখা দরকার।

হাটহাজারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বেলাল উদ্দিন জাহাঙ্গীর বলেন, ঘটনার সময় পরিবারের কোনো সদস্য বাসায় ছিলেন না। তিনি বলেন, ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পর মৃত্যুর কারণ স্পষ্ট হবে।

দিয়াজ চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র ও নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দীনের অনুসারী হিসেবে পরিচিত। এদিকে দিয়াজের মৃত্যুর খবর শুনে তার বাসার সামনে জড়ো হন ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা।

এ ঘটনার প্রতিবাদে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে শহরের ট্রেন ও বাস চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। বর্তমানে তারা চট্টগ্রাম-রাঙামাটি মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করছে। ফলে চট্টগ্রামের সঙ্গে রাঙামাটি ও খাগড়াছড়ির বাস চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে।

  •  

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট