ছাতকে পরিবহন শ্রমিক-ছাত্রলীগ সংঘর্ষে আহত ৪০

প্রকাশিত: ২:১৫ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ৭, ২০১৬

ছাতক প্রতিনিধি : ছাতকের গোবিন্দগঞ্জে ছাত্রলীগের কর্মীদের সাথে সিএনজি চালিত অটোরিক্সা শ্রমিকদের সংঘর্ষের ঘটনায় ইউনিয়ন চেয়ানম্যানসহ অন্তত ৪০ জন আহত হয়েছে। রোববার বিকেলে গোবিন্দগঞ্জ পয়েন্টে এ সংঘর্ষের সময় সিএনজি ষ্ট্যান্ড এলাকায় ৪০টি অটোরিক্সা-টেম্পু ভাংচুর করা হয়েছে। থানা পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে ৭ রাউন্ড রাবার বুলেট ও ৬ রাউন্ড টিয়ারসেল নিক্ষেপ করে।
সংঘর্ষে গুরুতর আহত ওবায়দুল হক বাবুল, আবুল কাশেম শাহীন, রাকিব উদ্দিন, সিরাজুল ইসলাম, সদর মিয়া, মোতাহার হোসেন, লিটন মিয়াসহ ৯জনকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বিকেল ৩টায় গোবিন্দগঞ্জ আব্দুল হক স্মৃতি ডিগ্রী কলেজের ছাত্রলীগ কর্মীরা সিলেট বিভাগে স্থান পাওয়া আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এড. মিছবাহ উদ্দিন সিরাজসহ নের্তৃবৃন্দকে স্বাগত জানিয়ে একটি মিছিল বের করে। মিছিলটি ট্রাফিক পয়েন্ট অতিক্রম করার সময় ছাত্রলীগ কর্মীদের সাথে স্থানীয় পরিবহন শ্রমিকদের কথা কাটাকাটাকাটি ও হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এরই জের ধরে দু’পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা-ধাওয়া শুরু হলে ছাতক-সিলেট ও ছাতক-সুনামগঞ্জ সড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। ফলে সড়কের তিন পাশে প্রায় শতাধিক যাত্রীবাহী বাস ও ট্রাকসহ অন্যান্য যানবাহন আটকা পড়ে।
খবর পেয়ে ছাতক থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে লাঠিচার্জ ও রাবার বুলেট এবং টিয়ারসেল ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। প্রায় ঘন্টাব্যাপী এ সংঘর্ষে আহত ৪০ জনের মধ্যে ৯জনকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যান্য আহত গোবিন্দগঞ্জ সৈয়দেরগাঁও ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আখলাকুর রহমান, ছাত্রলীগের কলেজ সভাপতি তজম্মুল হক রিপন, সাধারন সম্পাদক আল আমিন, ছাত্রলীগ কর্মী নাজমুল হোসেন, আজহার খাঁন, নজরুল ইসলাম, দীনুল ইসলাম শ্যামল, উজ্জল মিয়া, সালমান ওয়াহিদ, গোলাম জিলানী, পাভেল আহমদ, সেলিম আহমদ, সাজু, মিলাদ, রাসেল, রইছ আলী, পরিবহন শ্রমিক বিরাম আলী, এনামুল হক, আহমদ আলী, রিয়াজুল হকসহ ৩১জনকে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি এবং চিকিৎসা দেয়ার খবর পাওয়া গেছে। সংঘর্ষের এক পর্যায়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে পুলিশের উপস্থিতিতে গোবিন্দঞ্জে যানবাহন চলাচল শুরু হয়। এ ঘটনার পর বিকাল ৫টায় সুনামগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কানন দেব নাথ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট