বীর মুক্তিযোদ্ধা বাদশা মিয়ার ইন্তেকাল

প্রকাশিত: ১২:৫২ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ২, ২০১৬

বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিলের সাবেক সাংগঠনিক কমান্ডার এবং সিলেট জেলা কমান্ডের সাবেক জেলা কমান্ডার, যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মোঃ বাদশা মিয়া আর নেই।
মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টায় আকস্মিক হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তিনি ইন্তেকাল করেন। (ইন্নালিল্লাহি —- রাজেউন)।
জানা যায়, মাগরেবের নামাজ আদায়ের পর হঠাৎ বুকে ব্যথা শুরু হলে নগরির টেকনিক্যাল রোডের সাধুরবাজারস্থ বাসা থেকে সাথে সাথে অচেতন অবস্থায় তাঁকে তেলীহাওরস্থ পার্কভিউ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে ডাক্তার পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।
মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬৩ বছর। তিনি স্ত্রী, ৯ ছেলে, ৪ মেয়ে, আত্মীয়-স্বজন, বন্ধু-বান্ধব, অসংখ্য শুভাকাঙ্খীসহ বিপুল সংখ্যক সহযোদ্ধা রেখে গেছেন।
মুক্তিযোদ্ধা বাদশা মিয়ার প্রথম নামাজে জানাযা ২ নভেম্বও বুধবার বাদ জোহর সাধুরবাজারস্থ খোজারখলা জামে মসজিদ প্রাঙ্গনে এবং বাদ আছর সদর দক্ষিণ উপজেলার তেতলী ইউনিয়নের বদিকোনাস্থ তাঁর নিজ বাড়িতে দ্বিতীয় জানাযা শেষে পারিবারিক কবরস্তানে তাকে দাফন করা হবে।
বীর মুক্তিযোদ্ধা বাদশা মিয়া ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধে ৪নং সেক্টরের অন্তর্গত কৈলাশ শহর সাব-সেক্টরের অধীনে অংশ নেন। তিনি মূলতঃ বর্তমান মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ, শ্রীমঙ্গলসহ সংলগ্ন এলাকায় সংঘটিত বিভিন্ন সম্মুখযুদ্ধে বীরত্বের সাথে অংশ নিয়েছিলেন। মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে কমলগঞ্জ উপজেলার আছকরাবাদ ইউনিয়নের অন্তর্গত হোসনাবাদে সংঘটিত সম্মুখ সমরে অংশ নিয়ে পাকিস্তানি হায়েনাদের গোলার আঘাতে মারাত্মক আহত হন। পরে তাঁকে ভারতের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হলে সুস্থ হয়ে পুনরায় তিনি যুদ্ধে অংশ নেন।
এদিকে, বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মোঃ বাদশা মিয়ার মৃত্যুতে সদর দক্ষিণ নাগরিক কমিটি সিলেট’র পক্ষ থেকে গভীর শোক জ্ঞাপন করা হয়েছে। সংগঠনের আহবায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মোঃ তুরণ মিয়া, যুগ্ম আহবায়ক মোল্লারগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব শেখ মোঃ মকন মিয়া, তেতলি ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ মঈনুল ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মোঃ সাইফুল আলম ও সিলেট সিটি কর্পোরেশনের সাবেক ভারপ্রাপ্ত মেয়র মোঃ আজম খান, সদস্য সচিব সাংবাদিক চঞ্চল মাহমুদ ফুলর এক যুক্ত বিবৃতিতে শোক প্রকাশ করে তাঁর রুহের মাগফেরাত কামনা করেন এবং মরহুমের শোকাহত পরিবারবর্গের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট