‘অধ্যাপক দেওয়ান আজরফ আমাদের জাতীয় জীবনে এক নক্ষত্র পুরুষ’

প্রকাশিত: ১:৪৭ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২৯, ২০১৬

বাংলাদেশ কবি সভা সিলেট জেলা শাখার উদ্যোগে দেওয়ান মোহাম্মদ আজরফ এর গবেষণা ও জীবন কর্ম নিয়ে এক আলোচনা সভা শুক্রবার (২৮ অক্টোবর) সন্ধ্যা ৬টায় কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদ হলে অনুষ্ঠিত হয়েছে।
অনুষ্ঠানের প্রধান আকর্ষন ছিলেন- কবি গবেষক ও দেওয়ান মোহাম্মদ আজরফ’র কন্যা সাদিয়া চৌধুরী পরাগ।
সিলেট এক্সেলসিয়র এর ম্যানেজিং ডাইরেক্টর সাংবাদিক সাঈদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও কবি কানিজ আমেনা কুদ্দুস এবং কবি বিনিয়ামিন রাসেলের যৌথ পচিরালনায় আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সার্জারী বিভাগের বিভাগীয় প্রধান (অব.) রোটারিয়ান অধ্যাপক ডা. মীর মাহবুবুল আলম, প্রধান আলোচকের বক্তব্য রাখেন, শাবিপ্রবির ফুড ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড টি টেকনোলজির বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ড. এম মোজাম্মেল হক খোকন, বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, কেমুসাসের সহ সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক দেওয়ান মাহমুদ রাজা চৌধুরী, বাংলাদেশ কবি সভা কেন্দ্রীয় কমিটির উপদেষ্ঠা অধ্যাপক কবি বাছিত ইবনে হাবীব, সাংবাদিক কবি মুহিত চৌধুরী, বাংলাদেশ কবি সভা কেন্দ্রীয় কমিটির উদেষ্ঠা কবি মুসা আল হাফিজ, গল্পকার সেলিম আউয়াল, রোটারি ক্লাব অব সিলেট গ্রিন এর আই.পি.পি রোটারিয়ান শেখ মোঃ নূরুল ইসলাম খালেদ প্রমুখ।

তারেক মনোয়ারের পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াতের মাধ্যমে আলোচনা সভার শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন- বাংলাদেশ কবি সভা সিলেট জেলার সভাপতি সিদ্দিক আহমদ ও উপদেষ্ঠা কবি এম এ ফাত্তাহ।
সভায় বক্তারা বলেন- জাতীয় অধ্যাপক দেওয়ান মোহাম্মদ আজরফ আমাদের জাতীয় জীবনে এক নক্ষত্র পুরুষ এবং উপমহাদেশের অন্যতম দার্শনিক ছিলেন। তিনি যে সামগ্রীক জীবন দর্শনের মুখোমুখি হয়েছিলেন, তা হচ্ছে ইসলামী বিশ্বজনীন জীবন দৃষ্টি।
তিনি স্বীয় সম্প্রীতি ও উদারতার মাধ্যমে সকল ধর্মাবলম্বী মানুষকে তাঁর আলিঙ্গনে আনেন। ইসলামের প্রতি গ্রগাঢ় অনুরাগ তাঁকে সংকীর্ণতার উর্ধ্বে এনে সর্বজন প্রদ্ধেয় করে তুলেছিল। তাঁর জীবন দর্শন সচেতন মানুষের মানবিক কল্যাণের আলোকবর্তিকা। বিশ্বের অনেক দেশেই দার্শনিক হিসেবে পরিচিত ছিলেন অধ্যাপক আজরফ।
তাঁর লেখনী ছাপা হয়েছে বিশ্বের কমপক্ষে দশটি দেশে। কিন্তু আমাদের অনেকের কাছেই এই মহান ব্যক্তিটি এখনো অপরিচিত। মোহাম্মদ আজরফ ছিলেন সার্বজনীন চিন্তার কীর্তিমান পুরুষ। এমন প্রতিভাধর ব্যক্তিরাই জাতির অহমিকা হতে পারেন।

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট