খালেদাকে বাকি জীবন সংসদের বাইরেই থাকতে হবে: হানিফ

প্রকাশিত: ২:৫৫ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৮, ২০১৬

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে বাকি জীবন সংসদের বাইরেই থাকবে হবে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ।

তিনি বলেন, বেগম খালেদা জিয়া সংসদের বাইরে আছেন আমাদের বিশ্বাস বাকি জীবন খালেদা জিয়াকে সংসদের বাইরেই থাকতে হবে।

মঙ্গলবার রাজধানীর প্রিয়াংকা কমিউনিটি সেন্টারে ঢাকা মহানগর উত্তর এবং দক্ষিণ আওয়ামী লীগের যৌথ সভায় এসব কথা বলেন তিনি।

হানিফ বলেন, খালেদা জিয়া ক্ষমতায় থাকার সময় যে দুর্নীতি করেছে, এতিমদের টাকা আত্মসাত করেছে, আরো যা অপরাধ করেছে সেই অপরাধের জন্য আজকে তিনি বিচারের কাঠগড়ায়।

তিনি বলেন, খালেদা জিয়া এ সরকারকে উৎখাত করার জন্য দীর্ঘ দিন জ্বালাও পোড়াও পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ করে ২৩১জন মানুষ মেরেছেন। এই ২৩১ জন মানুষ হত্যার দায় খালেদা এড়াতে পারেন না। এই হত্যার দায়ে খালেদাকে বিচারের কাঠ গড়াই দাঁড়াতে হবে এবং তার পাপের জন্য আদালতের শাস্তি ভোগ করতে হবে। তার এই শাস্তির জন্য পরবর্তীতে আর তিনি নির্বাচনের যোগ্য বলে বিবেচিত হবেন না। তাই তার বাকী জীবনটা সংসদের বাইরে কাটাতে হবে।

‘চীনের রাষ্ট্রপতির সাথে খালেদা জিয়ার বৈঠকে বিশেষ বার্তা রয়েছে’ বিএনপি নেতা খন্দকার মোশাররফ হোসেনের এ বক্তব্যের সমালোচনা করে হানিফ বলেন, পাগলের সুখ মনে মনে আর খালেদা বা বিএনপি নেতাদের সুখ বিদেশীরা এসে কিছু বললে।

তিনি বলেন, বিএনপির অপরাধের জন্য দেশের জনগন তাদের আস্তাকুড়ে নিক্ষেপ করেছে। সারা জীবন তাদের আস্তাকুড়েই থাকতে হবে এবং এখানেই সুখ খুজে নিবেন তারা।

হানিফ বলেন, মুক্তিযুদ্ধে বিরোধী শক্তিরাই ১৯৭৫ সালে সুযোগ বুঝে বঙ্গবন্ধুর পরিবারকে হত্যা করেছে। এই হত্যা কোনো ব্যক্তিকে নয় বাংলাদেশের স্বাধীনতাকে, বাঙ্গালীর চেতনাকে হত্যা করা হয়েছে। শেখ রাসেলের মত শিশুকে হত্যার নজীর বিশ্বের ইতিহাসে নেই।

তিনি বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে হত্যার দীর্ঘ দিন পরেও হত্যাকারীদের বিচার হয়েছে এবং বিচার কার্যকরও হয়েছে। তবে যাদের বিচার এখনো হয়নি তাদের বিচারের আওতায় এনে বিচার করলে রাসেলের আত্মা শান্তি পাবে।

তিনি বলেন, স্বাধীনতা বিরোধী জামায়াত-বিএনপি এখনো সোচ্চার রয়েছে। যুদ্ধাপরাধীদের বিচার বন্ধ করা, দেশের উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত করা এবং দেশকে বিশ্বের কাছে একটি ব্যর্থ রাষ্ট্র প্রমাণ কারাই তাদের লক্ষ্য। কিন্তু শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এ সকল বাধা অতিক্রম করে দেশ উন্নয়নের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে।

এ সময় উপস্থিত নেতাদের উদ্দেশ্যে হানিফ বলেন, বঙ্গবন্ধুর আদর্শে দেশের উন্নয়ন করলে শেখ রাসেলসহ বঙ্গবন্ধুর পরিবারের আত্মা শান্তি পাবে।

এ যৌথ সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন- খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, আলহাজ্ব আবুল হাসনাত, শাহে আলম মুরাদ, রহমত উল্লাহ, আলহাজ্ব সাদেক খান প্রমুখ।

  •