হতাশার ড্র মোহামেডানের

প্রকাশিত: ১:৪৬ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১৬

ম্যাচের গল্পটা হতে পারতো অন্য রকম। বিজয়ী দলের হয়ে নাম লেখা থাকতে পারতো  মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব লিমিটেডের। তবে ভাগ্য সহায় ছিল না বলে গোল শূন্য ভাবে আরামবাগ ক্রীড়া সংঘের  সাথে ড্র করে সন্তুষ্ট থাকতে হয় তাদের ।

ম্যাচের ৪ মিনিটে মোহামেডানের রক্ষণভাগকে বোকা বানিয়ে ডিবক্সের ভেতর ডুকে পড়েন আরামবাগের কেস্টার একন।তবে আক্রমণটি শেষ পর্যন্ত সফল হয়নি।
১০ মিনিটে পাল্টা আক্রমণে যায় মোহামেডান। তৈহিদ আলম নেওয়া শটটি প্রতিহত করেন আরামবাগের গোলরক্ষক মিটুল হাসান।
১৬ মিনিটে আবারও ডিবক্সের ভিতর জটলা সৃষ্টি করে মোহামেডান। তবে এই জটলার মধ্য থেকে গোল পোস্টের  ভেতরে বল ডুকানোর মত কেউ ছিলো না ।

২১ মিনিটে ডান প্রান্ত থেকে মোহামেডানের স্ট্রাইকার সজিবের শটটি গোল পোস্টের ঠিকানা খুঁজে পায়নি।
২৭ মিনিটে ফ্রি কিক থেকে জাফরের শটটি গোল পোস্ট প্রায় ছুয়ে যায়।
গোল শূন্য ভাবে শেষ হয় খেলার প্রথমার্ধ।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে  আরামবাগের ফরোয়ার্ড কেস্টার একন একাই বল নিয়ে ডুকে পড়েন মোমেডানের দুর্গে  । এ সময় মোহামেডানের গোলকিপার মো: নেহালের সাথে তার সংঘর্ষ হয়। ফলে তার এই প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়।
খেলার ৫৭ মিনিটে ফ্রি কিক লাভ করে মোহামেডান। তবে সেখান থেকে কোন গোল আদান করতে পানেনি পেটরিক।
৬৭ মিনিটে ডান প্রান্ত থেকে আরামবাগের  কেস্টারের শটটি গোল পোস্টের অনেক উপর দিয়ে যায়।
৭৮ ও ৮১ মিনিটে ইসমাইল ভাঙ্গুয়া ও শাহেদের নেওয়া শট গোল বারে লেগে ফিরে আসলে হতাশায় পুড়ে মোহামেডান সমর্থকেরা।
৮৫ মিনিটে আবারও হতাশ হতে হয় মোহামেডানকে । ম্যাচে তাদের শেষ সুযোগটি নষ্ট করেন রাশেদুল ইসলাম। ডিবক্সের ভিতরে ডুকে গিয়েও গোলরক্ষককে ফাঁকি দিতে পারেননি তিনি।

গোল শূন্য ভাগে ৯০ মিনিটের খেলা শেষ করে পয়েন্ট ভাগাভাগি করে দুদল।

  •  

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট