সিলেটে নানা আয়োজনে ওসমানীর ৯৮তম জন্মবার্ষিকী পালিত

প্রকাশিত: ২:৩৯ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২, ২০১৬

সিলেটে বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে বঙ্গবীর এম এ জি ওসমানীর ৯৮তম জন্মদিন পালন করেছে। এসব কর্মসূচির মধ্যে ছিল মাজার জিয়ারত, আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিল।

বঙ্গবীর ওসমানী স্মৃতি সংসদ
বঙ্গবীর ওসমানী স্মৃতি সংসদের উদ্যোগে মুক্তিযুদ্ধের সর্বাধিনায়ক বঙ্গবীর এমএজি ওসমানীর ৯৮তম জন্মবার্ষিকী ১ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার দরগাহে হযরত শাহজালাল (র:) মাজার প্রাঙ্গণে সকাল ৯টা থেকে ১টা পর্যন্ত খতমে কোরআন, বাদ জোহর হযরত শাহজালাল (র:) জামে মসজিদে মিলাদ পরিচালনা করেন হাফিজ মাওলানা আব্দুল কাদির শাহপরানী। মিলাদ শেষে দোয়া মাহফিল পরিচালনা করেন ক্বারী শেখ কবির উদ্দিন। পরে হযরত শাহজালাল (রঃ) মাজার সংলগ্ন বঙ্গবীর ওসমানীর মাজারে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদনের পর ফাতেহা পাঠ শেষে মরহুমের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া পরিচালনা করেন দেওয়ান মাসুদ রাজ চৌধুরী।
বঙ্গবীর ওসমানী স্মৃতি সংসদের সভাপতি সৈয়ীদ আহমদ বহলুল সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট জুয়েল আহমদ পরিচালনায় দরগাহ গেইটস্থ নিউ জম জম হোটেলে গতকাল সন্ধ্যা ৭টায় এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সংসদের প্রধান উপদেষ্টা বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ কলন্দর আলী। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন সিলেটের আহবায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ মানিক মিয়া, বিশিষ্ট কমিউনিটি নেতা মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল গফুর খালিছাদার, সাংবাদিক মুক্তিযোদ্ধা মৃণাল কান্তি চৌধুরী, শফিকুর রহমান শফিক, সাবেক কাউন্সিলর নাজনিন আক্তার কণা প্রমুখ। পরে বঙ্গবীর ওসমানীর ৯৮তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে কেক কাটা হয়।
পৃথক অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শামসুল আলম, নেজামে ইসলামী পার্টি সিলেট জেলা সভাপতি মাওলানা আবু ইউসুফ চৌধুরী, হযরত শাহ মোস্তফা (র:) দরগাহর মোতাওয়াল্লী সৈয়দ খলিলুল্লাহ জুনেদ, ইয়াকুতুল গনি ওসমানী টিটু, মাওলানা সাইফুদ্দিন আহমদ, শেখ ফরিদ আহমদ, মোঃ ছালাহ উদ্দিন রিমন, মোঃ ইউসুফ শেলু, ইসলামী ঐক্যজোট সিলেট জেলা সভাপতি মাওলানা আছলাম রহমানী, ডি.এম মামুন তালুকদার, সাংবাদিক এস.এম সোহেল, আখলিছ আহমদ চৌধুরী, আবুল কাশেম হেলাল তফাদার, মুফতী সাদিকুর রহমান ইয়মোনী, মোঃ শওকত হোসেন, হাফিজ সিরাজুল হক, হোসাইন আহমদ সিরাজ প্রমুখ।

ওসমানী যাদুঘর
M A G Usmani pic - 01.09.16.docবঙ্গবীর জেনারেল এম এ জি ওসমানীর ৯৮তম জন্মবাষির্কী উপলক্ষে বৃহস্পতিবার ওসমানী জাদুঘর সিলেটের উদ্যোগে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুস্টিত হয়।
সভায় বক্তারা বলেন, মহান মুক্তিযোদ্ধের সর্বাধিনায়ক বঙ্গবীর জেনারেল এম এ জি ওসমানী যে নেতৃত্ব দিয়েছেন তা ভুলার মত নয়। অসাধারণ বীরত্ব আর কৃতিত্ব প্রদর্শন করে তিনি পশ্চিমাদের কবল থেকে দেশকে মুক্ত করেন। সেই সঙ্গে তিনি ছিলেন আজীবন গণতন্ত্রী, ধার্মিক ও খাঁটি দেশপ্রেমিক। তার নামটি বাদ দিলে আমাদের স্বাধীনতাযুদ্ধের ইতিহাস রচনাই অসম্পূর্ণ থেকে যাবে। আমাদের স্বাধীনতা যুদ্ধে যেমন, তেমনি স্বাধীন দেশেও জাতির দুঃসময়ে কান্ডারী হিসেবে আবির্ভূত হয়েছেন এই বঙ্গবীর। অনেক সময় তিনি জাতিকে নির্ঘাত সংঘাত থেকে উত্তরণের পথ দেখিয়েছেন। অথচ তিনি কখনও রাষ্ট্রক্ষমতা চান নি। মহান এই বঙ্গবীরের তার কর্ম দিয়ে বরণীয় হয়ে, স্মরণীয় হন এদেশের মানুষের কাছে থাকবেন।
শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের পুর ও পরিবেশ কৌশল প্রফেসর ড. জহির বিন আলম’র সভাপতিত্বে ও সিলেট কল্যাণ সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি জাতীয় ভাবে শ্রেষ্ট যুব সংগঠক পদক প্রাপ্ত এহসানুল হক তাহেরের পরিচালনায় প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্যে রাখেন সিলেটে মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার এস এম রোকন উদ্দিন। প্রধান আলোচক হিসাবে বক্তব্যে রাখেন সিলেট সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর আতাউর রহমান। বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্যে রাখেন সিলেট এমসি কলেজ উপাধ্যক্ষ প্রফেসর মুহাম্মদ হায়াতুল ইসলাম আকাঞ্জি, ওসমানী স্মৃতি ট্রাস্ট ট্রাস্টি এডভোকেট নওসাদ আহমদ চৌধুরী।
আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলের শুরুতে স্বাগত বক্তব্যে রাখেন ওসমানী জাদুঘর সিলেটের সহকারী কীপার জিয়াররত হোসেন খান।
বক্তব্যে রাখেন জাতীয় জনতা পাটি’র সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা এডভোকেট আব্দুল মতিন চৌধুরী, বীর মুক্তিযোদ্ধা দেওয়ান ফারুক চৌধুরী, জেলা শিক্ষা অফিসের সহ-পরিদর্শক শাহাব উদ্দিন, রোটারিয়ান সুহাদ রব চৌধুরী, স্মৃতি পরিষদের সাধারণ সম্পাদক এম ইউ শিপলু।
উপস্থিত ছিলেন আনোয়ার হোসেন, সুর্যোদয় যুব সংঘ ও এতিম স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি হাসান তালুকদার সোহেল, সাধারণ সম্পাদক এ কে কামাল হোসেন, পয়েন্ট ক্লাবের দপ্তর সম্পাদক তালেব হোসেন তালেব, ক্যাডেট আন্ডার অফিসার বিএনসিসি, এমসি কলেজ রুহুল আমীন, মদুদ হাসান, নুরুজ্জামান, মাসুদ জাহান, আলী আকবর, রোভার স্কাউট গ্র“প এমসি কলেজ দিলোয়ার হোসেন, তাহমিদুর রহমান, আহসান হাবিব. পুস্পিতা ঘোষ চৌধুরী, হিমেল আহমদ, জাতীয় কবিতা পরিষদ এমসি কলেজের অংশ গ্রহণকারী অসির সরকার, ইমরান তালুকদার, এইচ এম মারুফ, লক্ষণ রায়, মাফিক আহমদ, থিয়েটার মুরালিচাঁদ, মোহনা সাংস্কৃতিক সংঘ, সিলেট কল্যাণ সংস্থার, হাবিবুর রহমান, হুমায়ুন রশিদ চৌধুরী, মিজানুর রহমান রুমন, আব্বাস উদ্দিন, হাসান তালুকদার সুহেল, জাকারিয়া আহমদ, তালেক হোসেন, আব্দুল­াহ জামিল, ওলীউল­াহ হেলাল, সাইদুর রহমান, রানা আহমদ, ইলিয়াছ আলী, হাফিজ বাহার আল মামুন, তোফায়েল আহমদ, নওশির আহমদ বাপ্পী, আলিম উদ্দিন প্রমুখ। দোয়া পরিচালনা করেন মাওলানা আলমগীর হোসেন।

গণদাবী ফোরাম
Gonodabi Furam Photo-01-09-16সিলেট বিভাগ গণদাবী ফোরামের উদ্যোগে বৃহস্পতিবার মুক্তিযুদ্ধের সর্বাধিনায়ক বঙ্গবীর জেনারেল এম এ জি ওসমানীর ৯৮তম জন্ম বার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত কর্মসূচীতে ছিল হযরত শাহজালাল (রহ.) মাজারস্থ ওসমানীর কবর জিয়ারত, পুষ্পস্তবক অর্পণ, হযরত শাহজালাল (রহ.) মাজার মসজিদে দোয়া মাহফিল ও নগরীর সুরমা মার্কেটস্থ আলোচনা সভা। দুপুরে সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ওসমানীর কবরে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন ও পরে মাজার মসজিদে আয়োজিত দোয়া মাহফিলে মরহুম ওসমানীর রূহের মাগফেরাত কামনা করা হয়। বিকেলে ফোরামের কেন্দ্রীয় সভাপতি আলহাজ্ব আখলাক আহমদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বঙ্গবীর ওসমানীর জীবনাদর্শ সকল ক্ষেত্রে বাস্তবায়নের দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করা হয়।
আলোচনা সভায় বক্তাগণ বঙ্গবীর জেনারেল ওসমানীর জীবনী পাঠ্য পুস্তকে অন্তর্ভুক্ত করা, ওসমানীর জন্ম ও মৃত্যু বার্ষিকী রাষ্ট্রীয়ভাবে পালন, ওসমানী যাদুঘরের স¤প্রসারণ করে পূর্ণাঙ্গ যাদুঘরে রূপান্তর, ওসমানী বিমান বন্দরকে পূর্ণাঙ্গ আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে রূপান্তর করে বিদেশী বিমান উঠা-নামার ব্যবস্থা, ওসমানী মেডিকেল কলেজকে মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে রূপান্তর, ওসমানী শিশু পার্কের স¤প্রসারণ, সিলেট রেল গেইট থেকে ওসমানীনগর পর্যন্ত রাস্তা বঙ্গবীর রোড নামকরণ এবং জালালাবাদ ক্যান্টনমেন্টে ওসমানী সামরিক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার দাবী জানান।
কর্মসূচীগুলোতে বক্তব্য রাখেন এবং উপস্থিত ছিলেন-চৌধুরী আতাউর রহমান আজাদ এডভোকেট, ইয়াওর বক্ত চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা মহিউদ্দিন আহমদ, শামীম হাসান চৌধুরী এডভোকেট, সাংবাদিক চৌধুরী দেলওয়ার হোসেন জিলন, দেওয়ান মসুদ রাজা চৌধুরী, সৈয়দ মোস্তাফিজুর রহমান, প্রাক্তন চেয়ারম্যান জমির উদ্দিন, জাহির উদ্দিন, আব্দুস শহীদ, আব্দুল গফফার মোঃ সোহেল, আমিনুল ইসলাম বকুল, শাহ মোঃ নাসির, সুফি মোহাম্মদ ইকবাল, তানিম চৌধুরী (আপন), রিপন মিয়া, শাহেদ মোঃ মাসুদ, শওকত আলী, সৈয়দ মিনহাজ, মাওলানা আসলাম রহমানী প্রমুখ।

বঙ্গবীর ওসমানীর জন্ম ও মৃত্যু বার্ষিকী উদযাপন পরিষদ
Osmani...Samiul Alom pic (1)বঙ্গবীর জেনারেল এম এ জি ওসমানী’র ৯৮তম জন্ম বার্ষিকী উপলক্ষে বঙ্গবীর ওসমানী জন্ম ও মৃত্যু বার্ষিকী উদযাপন পরিষদ জাতীয় কমিটির উদ্যোগে আলোচনা সভা, দোয়া মাহফিল ও কেক কাটা অনুস্টিত হয়। বৃহস্পতিবার বিকেলে নগরীর দরগাহ গেইটস্থ ড. আর কে ধর হলে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
বঙ্গবীর ওসমানী জন্ম ও মৃত্যু বার্ষিকী উদযাপন পরিষদ জাতীয় কমিটির আহবায়ক আলহাজ্ব আতাউর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন পরিষদের সদস্য সচিব মনোরঞ্জন তালুকদার।
বাংলাদেশ জাতীয় যুব উন্নয়ন পরিষদ সিলেট মহানগরের সভাপতি সহকারী অধ্যাপক ইসলাম উদ্দিনের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন সিলেট বিভাগীয় গর্ভনর ড. আর কে ধর, কমান্ডার্স ফোরাম প্রজন্ম ৭১, বালাগঞ্জ সভাপতি মো. আব্দুল গফুর খালিছদার, সিলেট জেলা বারের এপিপি এডভোকেট রাশেদা সাঈদা খানম, বাংলাদেশ জাতীয় যুব উন্নয়ন পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি আলহাজ্ব এম এ রকিব, ওসমানী জন্ম ও মৃত্যু বার্ষিকী উদযাপন পরিষদের যুগ্ম আহবায়ক আসাদুজ্জামান, বঙ্গবীর ওসমানী স্মৃতি সংসদের সভাপতি সৈয়ীদ আহমদ বহলুল, বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন সিলেটের আহবায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. মানিক মিয়া।
সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী আব্দুল মুনীম, আতাউর রহমান আতাই, এস এম সোহেল, এডভোকেট সাজ্জাদুর রহমান, সুনামগঞ্জ ছাত্র কল্যাণ পরিষদের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম, মো. শাহ আলম, হাওর উন্নয়ন পরিষদের সদস্য সচিব খালেদ মিয়া, ইউসুফ সেলু, শফিকুর রহমান শফিক, আজিজুল ইসলাম, আলী আহসান হাবীব, ইকবাল হোসেন, সৈয়দ সাব্বির হোসেন, ফয়সল আহমেদ, সৈয়দ নজরুল ইসলাম চুনু প্রমুখ। অনুষ্ঠানে বঙ্গবীরের জন্মবার্ষিকীর কেক কাটা হয়। অনুষ্ঠানে শুরুতেই পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত ও মোনাজাত পরিচালনা করেন মাওলানা মোতাহির আলী।

সেক্টর কমান্ডারস ফোরাম
Sector Commanders Forum Pic 1.9.16মহান মুক্তিযুদ্ধের সর্বাধিনায়ক, সিলেট তথা বাংলার কৃতি সন্তান বঙ্গবীর জেনারেল এমএজি ওসমানীর ৯৮তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে সেক্টর কমান্ডারস ফোরাম-মুক্তিযুদ্ধ-’৭১ সিলেট সিলেট বিভাগের উদ্যোগে এক আলোচনা সভা ও জন্মবার্ষিকীর কেক কাটা অনুষ্ঠান বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টায় নগরীর ধোপাদিঘিরপারস্থ কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়।
সিলেট বিভাগীয় সভাপতি ও কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট সরওয়ার আহমদ চৌধুরী আবদাল এর সভাপতিত্বে সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিভাগীয় সহ সভাপতি মারিয়ান চৌধুরী, জেলা শাখার সভাপতি এডভোকেট বন্ধু গোপাল দাশ, সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা মহিউদ্দিন, মহানগর শাখার সভাপতি এডভোকেট কিশোর কুমার কর, সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট গোলাম রাজ্জাক চৌধুরী জুবের, বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা মানিক মিয়া, বীর মুক্তিযোদ্ধা শওকত আলী, বীর মুক্তিযোদ্ধা শামসুল আলম, বীর মুক্তিযোদ্ধা উমেশ বৈদ্য, মুক্তিযুদ্ধে প্রবাসী সংগঠক আব্দুল গফুর খালিসাদার, ড. এডভোকেট দিলীপ কুমার দাশ চৌধুরী, এডভোকেট দেওয়ান তালহা চৌধুরী, মহিলা কমিটির সভানেত্রী শামসুন্নাহার মিনু, সাধারণ সম্পাদিকা হাসনা হেনা চৌধুরী, এডভোকেট চৌধুরী আতাউর রহমান আজাদ, জালাল উদ্দিন শাবুল, এডভোকেট মুমিনুর রহমান টিটু, এডভোকেট সাইফুর রহমান, নারীনেত্রী মাহমুদা নাজিম রুবি, সুপ্তা বৈদ্য, রেনুকা দাশ, তামিম চৌধুরী আপন, ধ্রæব গৌতম, সৈয়ীদ বহলুল আহমদ, শ্রীমতি বেবী দেবী, মিন্টু কুমার বৈদ্য, পবিত্র কুমার বৈদ্য প্রমুখ।
সভায় মহান মুক্তিযুদ্ধে জেনালের আতাউল গনি ওসমানীর অসামান্য অবদান শ্রদ্ধার সাথে স্মারণ করে বক্তারা বলেন, তার অবিচল নেতৃত্বে একটি স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা সম্ভব হয়েছে। সভায় বক্তারা বঙ্গবীর ওসমানীর জন্ম ও মৃত্যু বার্ষিকী রাষ্ট্রীয় ভাবে পালনে জন্যর সরকারের প্রতি আহবান জানান।
শুরুতে বঙ্গবীর ওসমানী ৯৮তম জন্মবার্ষিকীর কেক কাটেন সভাপতি সহ অতিথিবৃন্দ এবং সবাইকে মিষ্টি মুখ করানো হয়।

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট