নামাজের সময় মন্দিরে বাদ্যযন্ত্র বাজানোকে কেন্দ্রকরে কাজলশাহে ধাওয়া পাল্টাধাওয়া

প্রকাশিত: ৮:৩৩ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২, ২০১৬

893সিলেট নগরীর কাজলশাহ এলাকায় অবস্থিত ইস্কন মন্দিরে অবস্থানরত পূজা-অর্চণাকারী এবং পার্শ্ববর্তী মসজিদের মুসল্লিদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার খবর পাওয়াগেছে। শুক্রবার দুপুরে জুমার নামাজের পর এই হামলার ঘটনা ঘটে।

মুসল্লিরা জানান, ইসকনের ভক্তরা বিভিন্ন বাদ্যযন্ত্র নিয়ে সেখানে গানবাজনা করেন। শুক্রবারে নামাজের সময়ও তারা গানবাজনা বন্ধ করেন না। এ বিষয়ে তাদেরকে কয়েকবার অবগত করা হলেও তারা গানবাজনা চালিয়ে যায়। আজ শুক্রবার জুমআ’র নামাজের সময়ও ইসকন ভক্তরা গানবাজনা চালিয়ে যায়। এতে ক্ষুব্দ হয়ে মুসল্লিরা নামাজ শেষে ইসকনে যান। সেখানে বাদানুবাদের একপর্যায়ে উভয়পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।
স্থানীয়রা জানিয়েছেন, কাজলশাহ জামে মসজিদে জুমার নামাজ চলাকালীন সময়ে নিয়মিত পূজা-অর্চণা অনুষ্ঠান চলছিলো ইস্কন মন্দিরে। মসজিদ ও মন্দিরের অবস্থান কাছাকাছি হওয়াতে বাদ্যযন্ত্রের শব্দ মসজিদের ভেতর পর্যন্ত পৌঁছায়। এতে মুসল্লীদের নামাজে একাগ্রতা বিনষ্ট হলে মুসল্লীরা ক্ষিপ্ত হন ।
কয়েকজন পূজা-অর্চণাকারীদের বিষয়টি অবহিত করলে মুসল্লিদের সাথে বিরুপ আচরন করা হয়েছে বলে অভিযোগ রয়েছে । প্রত্যক্যদশীরা জানান, হিন্দুসম্প্রদায়ের কয়েক জন যুবক মুসল্লীদের উদ্দেশ্যে অশ্লীল বাক্যাউচ্চারন করার পর উভয় পক্ষে  ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করতে শুরু হয়। এসময় কাজলশাহ মসজিদের মাইক থেকে এলাকাবাসীর সহযোগিতা চেয়ে ঘোষণা দেয়া হয়। এলাকার বিশিষ্ট মুরুব্বীগন উভয়পক্ষকে শান্তহওয়ার আহবান জানান। এসময় ইস্কন মন্দিরের ফটক বন্ধ করে দিয়ে নিজেদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার চেষ্টা করেন পূজারীরা। এরপর তারাও ভেতর থেকে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করতে দেখা গেছে।
শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত দুই পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছিলো। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে ফাঁকা গুলি ছুঁড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করছে।

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট