সেপ্টেম্বরের মধ্যেই ১০ হাজার নার্স নিয়োগ

প্রকাশিত: ৩:১১ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৯, ২০১৬

দেশের সকল জেলায় স্বাস্থ্যসেবা জোরদারের লক্ষ্যে চলতি বছরের সেপ্টেম্বর মাসের মধ্যেই ১০ হাজার নার্স নিয়োগ প্রদান সম্পন্ন করা হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম।

সোমবার শিল্প মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমুর সাথে ঝালকাঠীর স্বাস্থ্যসেবার মানোন্নয়নসংক্রান্ত এক বৈঠকে স্বাস্থ্যমন্ত্রী এ কথা বলেন।

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ঝালকাঠী সদর হাসপাতালকে আড়াই শ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালে পরিণত করতে ইতিমধ্যে কাজ শুরু হয়েছে। দক্ষ সেবিকা তৈরি করতে এ জেলায় একটি নার্সিং কলেজ স্থাপনের কাজ চলছে বলে তিনি জানান।

বৈঠকে ঝালকাঠী জেলার স্বাস্থ্যসেবা পরিস্থিতির বিস্তারিত আলোচনা হয়।

এ সময় জেলা সদর হাসপাতালে বিশেষজ্ঞ ডাক্তার নিয়োগ, তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারীদের শূন্যপদ পূরণ, চিকিৎসা যন্ত্রপাতির সংরক্ষণ, কমিউনিটি ক্লিনিকগুলোর সংস্কার, স্বাস্থ্যসেবার মানোন্নয়নে নিয়মিত তদারকিসহ অন্যান্য বিষয় আলোচনায় স্থান পায়।

বৈঠকে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, তৃণমূল পর্যায়ে স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে বর্তমান সরকার একসাথে ৬৩০০ ডাক্তার নিয়োগ দিয়েছে। নিয়োগকৃত ডাক্তাররা বাধ্যতামূলকভাবে ন্যূনতম দুই বছর কর্মস্থলে থেকে সেবা দিচ্ছেন। এর ফলে গ্রামীণ স্বাস্থ্যসেবা খাতে ইতিবাচক পরিবর্তন এসেছে।

তিনি স্বাস্থ্যসেবা জোরদারের লক্ষ্যে সরকার প্রদত্ত সম্পদের সঠিক ব্যবহার নিশ্চিত করতে কর্মকর্তাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। কমিউনিটি ক্লিনিকগুলোতে সেবার মান বাড়াতে তিনি উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সশরীরে পরিদর্শন ও মনিটরিং কার্যক্রম জোরদারের পরামর্শ দেন।

শিল্পমন্ত্রী বলেন, ২০২১ সালের মধ্যে শিল্পসমৃদ্ধ মধ্যম আয়ের এবং ২০৪১ সাল নাগাদ উন্নত ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশ বিনির্মাণের লক্ষ্য অর্জনে দেশে সুস্থ ও মেধাবী জনগোষ্ঠী গড়ে তুলতে হবে। এ লক্ষ্যে তৃণমূল পর্যায়ে স্বাস্থ্য সেবা জোরদার করতে হবে।

আমির হোসেন আমু বলেন, শিগগিরই সিরাজগঞ্জ শিল্পপার্ক প্রকল্পের কাজ শুরু হবে। ইতিমধ্যে এ প্রকল্পের প্রস্তাবনা চূড়ান্ত করা হয়েছে। আগামী একনেক বৈঠকে অনুমোদনের পরপরই প্রকল্পের বাস্তবায়ন শুরু হবে।

বৈঠকে শিল্প মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া এনডিসি, স্বাস্থ্যসচিব সৈয়দ মনজুরুল ইসলামসহ শিল্প ও স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অধীন বিভিন্ন সংস্থার প্রধানরা উপস্থিত ছিলেন।

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট