একাকীত্ব ধূমপানের মতোই ক্ষতিকর!

প্রকাশিত: ২:০৩ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ২৬, ২০১৬

জানেন কি, জীবনে বন্ধু না থাকাটা ধূমপানের মতোই স্বাস্থ্যের পক্ষে বিপজ্জনক? ভাবছেন তো, ধূমপানের সঙ্গে বন্ধুহীন জীবনের যোগসূত্র কোথায়?

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বন্ধুহীন জীবন একাকীত্ব ডেকে আনে। আর এই একাকীত্বের প্রভাব ধূমপানের চেয়ে কোনো অংশে কম নয়।

গবেষণায় তারা দেখেছেন, একাকীত্ব শরীরে ব্লাডক্লটিং প্রোটিনের মাত্রা অনেকটাই বাড়িয়ে দেয়। যা, হার্ট অ্যাটাক ও স্ট্রোকের কারণ।

আঘাতজনিত কারণে শরীর থেকে রক্তক্ষরণ হলে, রক্তের ফাইব্রিনোজেন জমাট বেঁধে ক্ষরণ বন্ধ করে। কিন্তু এই ফাইব্রিনোজেনর মাত্রা অতিরিক্ত হয়ে গেলে, তা শরীরের পক্ষে আদৌ ভালো নয়। রক্তচাপ বাড়িয়ে দেয়। শুধু তাই নয়, এর জন্য ধমনীতেও মেদ জমে।

হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটির গবেষকরা পরীক্ষা করে দেখেছেন, ব্যক্তির সোশ্যাল নেটওয়ার্কের উপর নির্ভর করে ফাইব্রিনোজেনের মাত্রা। অর্থাৎ কোন ব্যক্তির কত বন্ধু রয়েছে বা পরিবারের বাকি সদস্যদের সঙ্গে তার সম্পর্কের উপর বিশেষ এই প্রোটিনের মাত্রার তারতাম্য নির্ভর করে।

সোজা কথায়, ব্যক্তির একাকীত্বের সঙ্গে সমানুপাতিক হারেই বাড়বে ফাইব্রিনোজেনের মাত্রা।

উদাহরণ স্বরূপ তারা জানান, যে ব্যক্তির সোশ্যাল নেটওয়ার্কে ৫ জন রয়েছেন, তার ফাইব্রিনোজেনের মাত্রা যার ২৫ জন বন্ধু রয়েছেন, তার চেয়ে ২০% বেশি।

‘প্রোসিডিংস অফ দ্য রয়াল সোসাইটি বি’ জার্নালে এই গবেষণার বিস্তারিত প্রকাশিত হয়েছে।

  •