‘প্রশাসনকে দিয়ে জঙ্গি দমন সম্ভব নয়’

প্রকাশিত: ১:৫৬ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ২০, ২০১৬

শেরপুর: একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শাহরিয়ার কবির বলেছেন, ‘প্রশাসনকে দিয়ে জঙ্গি দমন সম্ভব নয়। জনগণকে এখানে সম্পৃক্ত করতে হবে। জনগণের সঙ্গে প্রশাসনের সহযোগিতার জায়গাগুলো বাড়াতে হবে।’

শাহরিয়ার কবির বলেন, পুলিশকে মানুষ ভয়ের চোখে দেখে, পুলিশের সঙ্গে মানুষের বন্ধুত্ব সম্পর্ক হতে হবে।

শুক্রবার দুপুরে শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলার কাকরকান্দি ইউনিয়নে সোহাগপুর বিধবাপল্লির বিধবাদের মাঝে উপহার সামগ্রী বিতরণের সময় সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ সব কথা বলেন।

তিনি বলেন, আমাদের আইন পরিবর্তন করতে হবে। যাতে সাক্ষ্য আইনের বাইরে জঙ্গিদের দ্রুত বিচার করা যায়। তাছাড়া মানুষের ভোগন্তি কমাতে হবে। মানুষ যেন সাহস করে জঙ্গিদের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আসে। একই সাথে সাক্ষীদের নিরাপত্তার কথা আমরা বহু বছর ধরে বলছি।

তিনি আরো বলেন, জঙ্গিদের ব্যাপারে একটি সার্বিক কৌশল ব্যবস্থা পত্র দরকার। বর্তমানে পুলিশ যে ব্যবস্থা নিচ্ছে তা দরকার আছে কিন্তু তা যথেষ্ট নয়। এটা দিয়ে আপনি সাময়িকভাবে জঙ্গি দমন করতে পারবেন কিন্তু জঙ্গি নিমূল করা সম্ভব নয়। জঙ্গি নিমূল করতে হলে বহুমুখী পদক্ষে নিতে হবে। তার মধ্যে জনগণের সম্পৃক্ত সবচেয়ে জরুরি।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- অতিরিক্ত এটর্নি জেনারেল আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর (প্রশাসন) মুক্তিযোদ্ধা জিয়াদ-আল-মালুম, ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সাধারণ সম্পাদক কাজী মুকুল, সদস্য এরোমা দত্ত, নালিতাবাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ই্উএনও) তরফদার সোহেল রহমান প্রমুখ।

সোহাগপুর গ্রামের বিধবাপল্লির ৩০ জন বিধবাকে একটি শাড়ি, একটি চাঁদর ও তিন হাজার করে টাকা প্রদান করা হয়।

পরে বিকেলে নালিতাবাড়ী পৌর শহরের সেঁজুতি বিদ্যা নিকেতনে উপজেলা ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির আয়োজনে এক আলোচনা সভা হয়।

  •  

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট