‘আজকের ভক্তরাই সেদিন বঙ্গবন্ধুর হত্যার পথ প্রশস্ত করেছিল’

প্রকাশিত: ১২:০৭ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ১৭, ২০১৬

কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বলেছেন, আজকে যারা বঙ্গবন্ধুর ভক্ত সেজেছে, তারা সেদিন তার হত্যার পথ প্রশস্ত করেছিল।

মঙ্গলবার বিকেলে ধানমণ্ডির ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু জাদুঘর পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের কাছে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করতে গিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

এক প্রশ্নের জবাবে কাদের সিদ্দিকী বলেন, ‘মাফ করবেন। আমি ১৫ আগস্ট ঘর কোথাও থেকে বের হই না, কিছু খাই না, কারো সাথে দেখা করি না।’

তিনি বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর যখন কেউ কথা বলত না, গাছের পাতাও নড়ত না, সেই সময় প্রতিবাদ করে দীর্ঘ ১৬ বছর নিজের ঘরে পা দিতে পারিনি।’

কতদিন পর বঙ্গবন্ধু জাদুঘরে এলেন সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে কাদের সিদ্দিকী বলেন, ‘মাঝে মধ্যেই আসি, আপনারা খোঁজ রাখেন না। এখন হাতি পানিতে পড়ে থাকলেও খবর হয়। মানুষ না খেয়ে থাকলে খবর হয় না।’

বঙ্গবীর বলেন, ১৫ আগস্ট তার হত্যার পর যারা প্রতিবাদ করেছিল, তারা সেদিন হয়েছিল দুষ্কৃতকারী। কারো কারো জেল, জরিমানা, ফাঁসি হয়েছিল।

বর্তমান সঙ্কটের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীকে উদ্যোগ নেয়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধের সময় জাতি এক হয়েছিল বলেই আমরা জয়লাভ করেছিলাম। তাদের তুলনায় আমাদের অস্ত্রের শক্তি তেমন ছিল না। কিন্তু আমাদের রক্ত দেয়া, জীবন দেয়া ও একে-অপরকে ভালোবাসার শক্তি ছিল অনেক বেশি।

তিনি বলেন, আজকে সেটা নেই। আজকে জাতীয় চেতনা, সবাইকে ঐক্যবদ্ধ করার উদ্যোগ প্রধানমন্ত্রীরই নেয়া দরকার। এ উদ্যোগ নিয়ে তিনি যদি সফল হন, তাহলে সারাবিশ্বে তার নাম থাকবে।

খালেদা জিয়ার জন্মদিন প্রসঙ্গে কাদের সিদ্দিকী বলেন, বেগম খালেদা জিয়া যদি বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে এবং তার হত্যার ঘটনায় মর্মাহত হয়ে জন্মদিন পালন না করে থাকেন, তাহলে সেটা সাধুবাদ পাওয়ার যোগ্য। বঙ্গবন্ধুর মৃত্যুবার্ষিকী সার্বজনীনভাবে সবার পালন করা উচিত।

এসময় কাদের সিদ্দিকীর স্ত্রী ও দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য নাসরিন সিদ্দিকী ছাড়াও দলের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

  •