যুক্তরাষ্ট্রে সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত তেরা মিয়ার বাড়ী গোলাপগঞ্জে

প্রকাশিত: ১২:৩৭ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ১৫, ২০১৬

যুক্তরাষ্ট্রের কুইন্স সিটির আল ফুরকান মসজিদে জোহরের নামাজ শেষে বাসা ফেরার পথে গতকাল স্থানীয় সময় ১টা ৫০ মিনিটে সন্ত্রাসীদের গুলিতে দুই বাংলাদেশি নিহত হন। নিহত দু’জনের মধ্যে একজনের বাড়ী সিলেটের গোলাপগঞ্জ উপজেলার লক্ষীপাশা ইউপির জাঙ্গালাটা গ্রামে। তিনি ওই গ্রামের মৃত ইজ্জাদ আলীর পুত্র কাজী তেরা মিয়া (৬৯)। সাড়ে ৪ বছর পূর্বে ছোট ভাই বাবুলের ইমিগ্রেন্ট ভিসায় স্বপরিবারে পাড়ি জমান স্বপ্নের যুক্তরাষ্ট্রে। ব্যক্তিগত জীবনে তিনি ৪ মেয়ে ও ১ ছেলে সন্তানের জনক। সন্তানেরা হলেন মেয়ে হেলন বেগম (৪০), নাছিমা বেগম (৩৫), রুনা বেগম (৩০), মাছুমা বেগম (২৫ ) ও ছোট ছেলে কাজি শিবলু আহমদ (২৩)। তার তিন মেয়ে বিবাহিত ও বড় দুই মেয়ে দেশে স্বামীর সংসারে রয়েছেন।
নিহতের চাচাতো ভাই কাজি নুর উদ্দিনের সাথে কথা হলে তিনি জানান, স্বপ্নের দেশ যুক্তরাষ্ট্রে কুইন্স সিটির আল-ফুরকান মসজিদে মুয়াজ্জিনের দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন কাজী তেরা মিয়া। বাংলাদেশ সময় রবিবার সকালে নামাজ শেষে বাসায় ফেরার পথে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা ওই মসজিদের ইমাম ও মুয়াজ্জিনকে লক্ষ করে মাথার পেছন দিকে গুলি ছুড়লে তারা মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। পরে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে তাদের মৃত্যু হয়। মৃত্যুর সংবাদ দেশে এসে পৌছলে স্বজনদের মাঝে শোকের মাতম দেখা দেয়। এলাকায় দেখা দেয় এক হৃদয় বিদারক দৃশ্য। তবে নিহত ব্যক্তির লাশ দেশে আসবে কি না তা এখনও অনিশ্চিত।

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট