জঙ্গিদের জন্য বিএনপির এতো দরদ কেন, প্রশ্ন প্রধানমন্ত্রীর

প্রকাশিত: ৩:০৮ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ২৮, ২০১৬

কল্যাণপুরে জঙ্গি নিহত হওয়ার ঘটনায় বিএনপি নেতাদের দেওয়া বক্তব্যের সমালোচনা করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, এদের (বিএনপি নেতাদের) সঙ্গে জঙ্গিদের কোনো গোপন সূত্র আছে কী না, কোনো ষড়যন্ত্র এরা লিপ্ত কী না সেটাই দেখতে হবে।

তিনি বলেন, আমার প্রশ্ন বিএনপি নেতাদের এই আহাজারিটা কেন? এই জঙ্গিদের জন্য এত তাদের দরদটা কিসের? তাদের মনে এই সন্দেহ কেন জঙ্গি কী না? কারণ এদের লাশও পড়ে আছে। গুলশানে তারা যেভাবে ব্যাগ, তাদের জিন্সের প্যান্ট আর কালো আলখাল্লা মাথায় একি ধরনের চাদর বাঁধা।

বুধবার রাতে জাতীয় সংসদের একাদশ অধিবেশনের সমাপনী বক্তব্যে তিনি এ সব কথা বলেন।

তিনি বলেন, তারপরও তাদের মনে সন্দেহ বিষয়টা কি? এটা একটা সন্দেহের ব্যাপার। তাহলে তাদের (বিএনপি নেতাদের) কোথায় ঘা লাগলো? কোথায় ব্যাথা পেলেন তারা? তাহলে তাদের উদ্দেশ্যে কি ? এই জঙ্গিদের সাথে তাদের যোগসূত্রতা কোথায়? এই প্রশ্নটা আমি জাতির কাছে রেখে গেলাম তারাই এটা খুজে দেখবেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, জঙ্গি দমনে যখন চেষ্টা করছি সেখানে তারা (বিএনপি) যদি এই ধরনের প্রশ্ন তোলে পুলিশের কাযক্রমকে যদি জনগণের কাছে প্রশ্নবিদ্ধ করতে চায় এরচেয়ে দুঃখজনক আর কিছু না। আমাদের পুলিশ বাহিনী জীবনের ঝুকি নিয়ে সারা রাত কষ্ট করে এই জঙ্গিদের মোকাবেলা করছে।

তিনি বলেন, বিএনপি নেতা শাহ্ মোয়াজ্জেম হোসেন ও ব্রি. জে. (অব.) হান্নান শাহ দুজনেরই বক্তব্য নিহতরা জঙ্গি কী না সন্দেহ। গুলশানের ঘটনার সাথে তারা কল্যাণপুরের ঘটনার তুলনা করে। কোনো সুস্থ মস্তিস্কের মানুষ এই দুই ঘটনা তুলনা করতে পারে না।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, এক জায়গায় জঙ্গি ঢুকে মানুষ হত্যা করেছে এবং মানুষদের হত্যা করেছে। সেখানে জঙ্গিদের হাত থেকে মানুষদের উদ্ধার করা এবং জঙ্গিদের হত্যা করা অপারেশনটা ভিন্ন ছিলো। আমাদের জঙ্গি দমনে ভিন্ন পথ নিতে হয়েছে। আর এখানে (কল্যাণপুর) জঙ্গিদের একটা আস্তানা পাওয়া গেছে। তারা কিন্তু বুঝে গেছে পুলিশ ঘেরাও করে ফেলেছে এবং তারা পুলিশকে গুলিও করেছে। একজন পুলিশ আহত হয়েছে।

  •  

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট