পুলিশের বিরুদ্ধে মানিব্যাগ ছিনতাইয়ের অভিযোগ

সিলেট বিভাগ

সিলেট নগররীতে এক যুবককে মারধর ও তার মানিব্যাগ ছিতাইয়ের অভিযোগ উঠেছে ট্রাফিক পুলিশের বিরুদ্ধে।

এ ঘটনায় স্থানীয়রা জিন্দাবাজারে রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছেন। পরে পুলিশের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের আশ্বাসে তারা সড়ক অবরোধ তুলে নেন। শনিবার বিকাল ৩টার দিকে নগরের প্রাণকেন্দ্র জিন্দাবাজারে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশের হাতে লাঞ্ছিত নগরের দাড়িয়াপাড়ার এসডি ইমন জানান, অটোরিকশাযোগে তিনি দাড়িয়াপাড়া থেকে জিন্দাবাজার পয়েন্টে এসে নামেন। এসময় ডিউটিরত ট্রাফিক পুলিশের এটি এস আই মাসুম অটো রিকশা চালক ও তাকে উদ্দেশ্য করে অশ্লীল গালি দেন। তিনি এর প্রতিবাদ করলে তাকে টেনে হেচরে পাশের জগন্নাথ জিউর আখড়ায় (মন্দিরে) নিয়ে মারধর করেন এবং মানিব্যাগ ছিনিয়ে নেন ওই পুলিশ কর্মকর্তা। মানিব্যাগে তার ১০ হাজার টাকা ছিলো বলেও তিনি অভিযোগ করেন।

এদিকে পুলিশের হাতে ওই যুবক লাঞ্ছিত হওয়ার এবং মানিব্যাগ ছিনতাইয়ের খবর ছড়িয়ে পড়লে স্থানীয় বাসিন্দারা জিন্দাবাজার পয়েন্ট অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন। পরে কোতয়ালি থানার এসি ইসমাঈলসহ পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থলে এসে সুষ্ঠু বিচারের আশ্বাস দিলে তারা সড়ক অবরোধ তুলে নেন।

মাসুম নগর ট্রাফিক পুলিশের এটিএসআই (অ্যাসিস্ট্যান্ট টাউন সাব ইন্সপেক্টর)। আর ভুক্তভোগী এসডি ইমন নগরীর দাঁড়িয়াপাড়া এলাকার বাসিন্দা ও একটি মডেল অ্যাজেন্সির মালিক ও পেশাদার মডেল। তিনি দাড়িয়াপাড়ার ধরণী দাশের পুত্র।

কোতয়ালি থানার এসি ইসমাইল হোসেন জানান, আমরা ওই যুবকের কাছ থেকে লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। এ ব্যাপারে আমরা পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে কঠিন ব্যবস্থা নিচ্ছি। আর মানিব্যাগ ছিনিয়ে নেওয়ার বিষয়টি আমরা সিসি ক্যামেরার ফুটেজ চেক করে ব্যবস্থা নেব।

সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (মিডিয়া) মো. জেদান আল মুসা ভুক্তভোগীর অভিযোগের ভিত্তিতে শনিবার সন্ধ্যায় তাকে (এটি এস আই মাসুম) প্রত্যাহার করা হয় বলে জানিয়েছেন।

  •  
  •  

Leave a Reply