সিলেটে শেখ রাসেলের টানা দ্বিতীয় জয়

খেলার খবর

নিজেদের হোম ভেন্যুর দ্বিতীয় ম্যাচেও জয় পেয়েছে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র। মিড ফিল্ডার খালেকুজ্জামানের গোলে চট্টগ্রাম আবাহনীকে ১-০ গোলে হারায় তারা।এই জয়ে ৫ ম্যাচ খেলে ৪ জয়ে ও ১ ড্রয়ে পয়েন্ট টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে থাকলো দলটি।

সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে বুধবার সন্ধ্যে সাড়ে ৬টায় শুরু হওয়া ম্যাচে দু’দল আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণ করে খেলতে থাকে। প্রথম সুযোগটি পায় স্বাগতিক শেখ রাসেল। সতীর্থের কাছে থেকে পাওয়া বলে হেড করেন শেখ রাসেলের এক ফুটবলার, তবে এই হেড গোলরক্ষক মোহাম্মদ নেহাল কর্নারের মাধ্যমে ঠেকান।

প্রথমার্ধের ২২তম মিনিটে সফরকারী চট্টগ্রাম আবাহনী ও পেয়েছিল গোলের সুযোগ, কিন্তু জাম্বিয়ান ফরোয়ার্ড মমদো বাহ সেটাকে উড়িয়ে মারেন গোলবারের উপর দিয়ে।

২৬তম মিনিটেও সিলেটের লোকাল বয় বিপলু আহমেদের দূর্বল শট প্রতিপক্ষ গোলরক্ষকের কোন পরীক্ষাই নিতে পারে নি। ম্যাচের ৩০ মিনিটে শেখ রাসেলের গোলরক্ষক আশরাফুল ইসলাম রানাকে একা পেয়েও কাজে লাগাতে পারেন নি শাহেদ হোসেন।

প্রথমার্ধের শেষ হওয়ার কিছু আগে রাসেলের উজবেক ফরোয়ার্ড আজিজব আলিশারের দূর্বল শট সহজেই তালুবন্দি করেন চট্টগ্রাম আবাহনীর গোলরক্ষক। ফলে গোল শূণ্য সমতা নিয়ে বিরতিতে যায় দু’দল।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই সুযোগ আসে সফলকারী আবাহনীর। ডি-বক্সের সামনে জটলা থেকে গোলের কোন সুযোগ আদায় করতে পারেনি দলটি।
তবে ম্যাচের ৬২ মিনিটে জয় সূচক গোলটি করেন শেখ রাসেলের হয়ে মিড ফিল্ডার খালেকুজ্জামান। ডি-বক্সের ভেতর থেকে নেওয়া তার শটটি গোল কিপার কোল কিছু বুঝে উঠার আগেই গোল লাইন অতিক্রম করে। ম্যাচের শেষ দিকে রাসেলের আরও কিছু সুযোগ আসে তবে সে গুলো কাজে না লাগাতে পারায় ১-০ গোলের জয় দিয়ে মাঠ ছাড়ে স্বাগতিক দলটি।

প্রথম ফেইজে সিলেটে ৫টি ম্যাচ খেলার কথা রয়েছে শেখ রাসেলের। আজকের ম্যাচের পর বাকি থাকবে ৩টি ম্যাচ। আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি ঢাকা আবাহনী লিমিটেড এর বিপক্ষে, ২৮ ফেব্রুয়ারি নফেল স্পোর্টিং ক্লাবের এবং ৭ এপ্রিল মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্রের বিপেক্ষ মাঠে নামবে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র।

Leave a Reply