সুুনামগঞ্জে ব্যানার নিয়ে দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত ৩০

সিলেট বিভাগ

সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে ব্যানার টানানোর জের ধরে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের দু’পক্ষের সংঘর্ষে নারী সহ ৩০ জন আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় গুরুতর আহত ৮ জনকে জেলা ও উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলার শ্রীপুর (উত্তর) ইউনিয়নের ভুরাঘাট গ্রামের পেছনে এ রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনাটি ঘটেছে।

আহতদের মধ্যে ২ জনকে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে ও অপর ৬ জনকে তাহিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সদর ভর্তি করা হয়েছে। অন্য আহতরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।

স্থানীয় সূত্র জানায়, সদ্য সমাপ্ত দুর্গা পুঁজোয় মন্ডপে ব্যানার টানাকে কেন্দ্র করে উপজেলার ভুরাঘাট গ্রামের জিতেন্দ্র বর্মণ ও একই গ্রামের রাজিন্দ্র বর্মণ, অতুল বর্মণের লোকজনের মধ্যে কথাকাটাকাটি হয়। পরবর্তীতে গ্রাম্য সালিশে বিষয়টি নিষ্পক্তি হয়।

ওই ঘটনার রেশ কাঁটতে না কাঁটতেই জিতেন্দ্র বর্মণের লোকজন গ্রামের পার্শ্ববর্তী চুনখলা হাওর থেকে মাছ শিকার করে বাড়ি ফেরার পথে শুক্রবার সন্ধায় গ্রামের পেছনে অতুল বর্মণের লোকজন রামদা দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে বেশ কয়েকজনকে গুরুতর আহত করে।

এ হামলার খবর জানাজানি হলে উভয় পক্ষের মধ্যে দ্বিতীয় দফায় সন্ধায় দেশীয় অস্ত্র নিয়ে প্রায় ঘন্টাব্যাপি ফের সংঘর্ষ হয়।
সংঘর্ষে উভয় পক্ষের গুরুতর আহতরা হলেন, নিপেন্দ্র বর্মণ, জিতেন্দ্র বর্মণ, শ্রী মতি অষ্টমী বর্মণ, শ্রী মতি নিয়তি বর্মণ, দুলাল বর্মণ, সুভাষ বর্মণ, শ্রী মতি বর্মণ, সুকুমার দাস, জুয়েল দাস, বিমন দাস, রুবেল দাস, সেবক বর্মণ।

তাহিরপুর থানার ওসি শ্রী নন্দন কান্তি ধর বলেন, সংঘষের্র ঘটনাটি লোকমুখে জেনেছি, অভিযোগ পেলে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Leave a Reply