মসজিদে স্বাস্থ্যকেন্দ্র গড়ে, অনন্য নজির স্থাপন করলো ভারতীয় মুসলিমরা

আন্তর্জাতিক

হায়দরাবাদ : ধর্মীয় প্রার্থনাস্থল মসজিদে চালু করা হল স্বাস্থ্য কেন্দ্র। লক্ষ লক্ষ দরিদ্রদের চিকিৎসার জন্য খুলে দেওয়া হল সেই মসজিদের দরজা।

মানবতার এমনই নজির গড়েছে নিজামের শহর হায়দরাবাদের একটি মসজিদ। শহরের এনএস কুন্তা এলাকায় অবস্থিত ওই মসজিদে প্রায় ১৫ লক্ষ মানুষ চিকিৎসার সুবিধা পেয়ে থাকেন। যাদের অধিকাংশই দরিদ্র শ্রেণীর মানুষ।

চিকিৎসা ছাড়াও স্বাস্থ্য সম্পর্কে নানাবিধ সুবিধা প্রদান করা হয় ওই মসজিদে চালু হওয়া স্বাস্থ্যকেন্দ্র থেকে। ওই স্বাস্থ্যকেন্দ্রের সঙ্গে যুক্ত রয়েছে ৩০টিরও বেশি সরকারি হাসপাতাল।

সবথেকে বড় বিষয় হচ্ছে সেবার জন্য ওখানে কোনও ধর্মের বাছবিচার করা হয় না। সকলকেই সমান গুরুত্ব দিয়ে পরিষেবা প্রদান করা হয়। স্বাস্থ্য পরিষেবা গ্রহণ করার জন্য অমসুলিমদের ওই মসজিদে প্রবেশ নিষিদ্ধ নয়।

মসজিদ কর্তৃপক্ষের এই মহান উদ্যোগে তাদের পাশে দাঁড়িয়েছে হেল্পিং হ্যান্ড ফাউন্ডেশন নামের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা।

হায়দরাবাদের ওই স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা এবং মসজিদের যৌথ প্রয়াসেই চলছে এনএস কুন্তা এলাকার স্বাস্থ্যকেন্দ্র। যেখান থেকে সুবিধা পাচ্ছন আকিরেড্ডি নগর, ভাতাপল্লী, চাসমা, মুস্তাফানগর, পাহাড়ি গুন্টল শাহ বাবা, টেকরি বিরিয়ানী শাহ, তিগাল কুন্তা, জাহানুমা, তাবুম এবং ফতিমা নগরের অধিবাসীরা ওই স্বাস্থ্যকেন্দ্র থেকে সুবিধা লাভ করছেন।

হেল্পিং হ্যান্ড ফাউন্ডেশনের ট্রাস্টি মজতুবা হাসান আসকারি জানিয়েছেন যে ওই স্বাস্থ্যকেন্দ্র চালাতে ১০০ জন স্বেচ্ছসেবক নিত্যদিন কাজ করে চলেছেন। চিকিৎসা ছাড়াও রোগীদের আরও একগুচ্ছ সুবিধা

দেওয়া হয় এই মসজিদের স্বাস্থ্যকেন্দ্রে। সম্পূর্ণ বিনা খরচে ডায়াগনস্টিক সেন্টারএর সুবিধা দেওয়া হয়। এছাড়াও ফিজিওথেরাপী সহ আরও নানাবিধ পরিষেবা সম্পূর্ণ বিনামূল্যে দেওয়া হয় বলে জানিয়েছেন মজতুবা হাসান আসকারি।

Leave a Reply