সোহরাওয়ার্দী উদ্যানমুখী জনস্রোত, নির্ধারিত সময়ের আগেই জনসভা শুরু

রাজনীতি

৬ নভেম্বর ২০১৮, মঙ্গলবার : সরকারের পদত্যাগ, নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন এবং কারাবন্দি বিএনপির চেয়ারপাসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে ঐক্যফ্রন্টের জনসভা আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হওয়ার কথা দুপুর ২টায়। কিন্তু বেলা ১১টার পরই শুরু হয়ে যায় জনসভা। নেতাকর্মীদের উপস্থিতিতে ভরে গেছে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান।

মঙ্গলবার সকাল ১০টার পরপরই বিএনপির নেতাকর্মীদের ঢল শুরু হয়। নেতাকর্মীরা বিশাল বিশাল মিছিল সহকারে উদ্যানে প্রবেশ করেন। দুপুর ১২টার পরপরই উদ্যান লোকে লোকারণ্য হয়ে উঠে।

বিএনপি ও দলের অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের স্লোগানে স্লোগেন মুখরিত তুলেছে উদ্যান। রাজধানীর নিউ মার্কেট, পুরান ঢাকা, বাংলামটর, শাহবাগ, মৎভবন, প্রেসক্লাবসহ বিভিন্ন স্থান থেকে মিছিলে মিছিলে উদ্যানে প্রবেশ করছে নেতাকর্মীরা। নেতাকর্মীদের মধ্যে স্বতঃস্ফূর্ত ভাব লক্ষ্য করা গেছে। হাজার হাজার নেতাকর্মীরা ব্যানার, ফেস্টুনসহ অংশ নেন।

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সভাপতিত্বে জনসভায় প্রধান অতিথি জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ড. কামাল হোসেন। প্রধান বক্তা জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জেএসডি) সভাপতি আ স ম আবদুর রব, কৃষক-শ্রমিক-জনতা লীগ সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্নাসহ এ জোটের শীর্ষ নেতারা বক্তব্য দেবেন।

সকাল ১০টা থেকে ঐক্যফ্রন্টের জনসভায় সাংস্কৃতিক পরিবেশনা চলছে। মঞ্চে গান পরিবেশন করছেন জাতীয়তাবাদী সামাজিক সাংস্কৃতিক সংস্থা-জাসাসের শিল্পীরা।

বিএনপির সংস্কৃতিবিষয়ক সহ-সম্পাদক ও জাসাসের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জনপ্রিয় সঙ্গীত শিল্পী মনির খানও গান পরিবেশন করছেন। মনির খানের দেশাত্বক ও দলীয় সঙ্গীতে মেতেছে সোহরাওয়ার্দীতে আসা নেতাকর্মীরা।

এছাড়াও আরেক জনপ্রিয় সঙ্গীত শিল্পী বেবী নাজনীনও মাতিয়ে তুলেছেন সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে। মনির খান ঘোষণা করেন ‘প্রথম বাংলাদেশ আমার শেষ বাংলাদেশ, জীবন বাংলাদেশ আমার মরণ বাংলাদেশ’ দিয়ে শুরু হবে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক নায়ক হেলাল খান, ইথুন বাবু, হাসান চৌধুরী, নাসির, চিত্রনায়িকা শাহরিয়ার ইসলাম শায়লা, খলনায়ক ডন, সেবা শানুসহ জাসাসের নেতাকর্মীরা মঞ্চে উপস্থিত আছেন।

Leave a Reply