২৬ নং ওয়ার্ডবাসী আমার আস্থা আর ভালোবাসা : তৌফিক বকস্ লিপন

সিলেট বিভাগ

সিলেট মহানগরীর ২৬ নং ওয়ার্ড কদমতলীর বাসিন্দা এবং সিলেট সিটি কর্পোরেশনের ২৬ নং ওয়ার্ডের সফল কাউন্সিলর মোহাম্মদ তৌফিক বকস লিপন। এবারের নির্বাচনে তিনি ব্যাডমিন্টন(র‌্যাকেট) প্রতীক নিয়ে অংশগ্রহন করছেন।
প্রায় ২ যুগের অধিক সময় ধরে তিনি এলাকার সমাজ সেবায় নিয়োজিত। তার মূল উদ্দেশ্য এলাকার উন্নয়ন করা। এলাকার বিভিন্ন উন্নয়মূলক কাজে রয়েছে তাঁর অসামান্য অবদান, কাউন্সিলর হওয়ার পূর্বে থেকেই সমাজের অসহায় মানুষের সেবায় নিয়োজিত ছিলেন তিনি। স্বর্ণশিখা সমাজ কল্যাণ সমিতির সফল সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন ১৩ বছর। রোটারী ক্লাব অব মেট্রোপলিটন ২০১৭-১৮ সালের প্রেসিডেন্ট ও রোটারেক্টর সিলেট এমসি কলেজ সেক্রেটারী হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। নিজের ব্যক্তিগত তহবিল থেকে ৫ জন মেধাবী শিক্ষার্থীদের লেখা-পড়ার খরচ বহন করছেন। কদমতলী এলাকার সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারের জন্ম গ্রহনকারী মোহাম্মদ তৌফিক বকস লিপন। তাঁর বাবার নাম মরহুম হাজী তছলিম বকস। ২০১৩ সালে সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ২৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর হিসেবে বিপুল ভোটে তিনি নির্বাচিত হন। কাউন্সিলর হওয়ার পর প্রায় ২ শতাধিক রাস্তা-ড্রেনের কাজ সম্পন্ন করেন। বিগত দিনে এই অর্ধেক কাজও কেউ করেনি। কদমতলী কবি দেলোয়ার সড়ক, হুমায়ূন রশীদ চত্তর, মুক্তিযোদ্ধা চত্তর, আব্দুস সামাদ চত্তর, ফোরলেন রাস্তার কাজসহ স্কুল-মাদরাসা, মসজিদের উন্নয়নসহ ওয়ার্ডের বিভিন্ন উন্নয়ন কাজে নিজেকে সব সময় নিয়োজিত রেখেছেন। নিরাপত্তার স্বার্থে ওয়ার্ডে স্থাপন করেছেন সিসি ক্যামেরা।১৯৭৩ সালে তিনি জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৯০ সালে এস.এস.সি পাশ করেন, ১৯৯২ সালে এইচএসসি, এরপর স্নাতক ডিগ্রী অর্জন করেন। তিনি ওয়ার্ডবাসীর প্রতি ৩০ জুলাই নির্বাচনের দিন ব্যাডমিন্টন র‌্যাকেট প্রতীকে ভোট প্রার্থনা করে একটি আবেদন জানিয়েছেন। যা হুবুহুবু তুলে ধরা হলো।

(আসসালামু আলাইকুম। আদাব ও শুভেচ্ছা।)
সুপ্রিয় সুপরিচিত,সম্মানিত ২৬ নং ওয়ার্ডবাসী আমার আস্থা আর ভালোবাসার শেষ আশ্রয়স্থল । ওয়ার্ডের সবাই আমার ভাই বোন ও আপনজন। সুখে দু:খে আমি আপনাদের পাশে ছিলাম, পাশে আছি এবং ইনশাআল্লাহ আগামীতে ও থাকবো। আগামী ৩০ জুলাই আপনাদের মহামূল্যবান ভোট ব্যাডমিন্টন (র‌্যাকেট) মার্কায় প্রদান করে জয়-যুক্ত করবেন। আমি জানি, ২৬ নং ওয়ার্ডের প্রত্যেক নাগরিক আপনারা সচেতন, তাই ক্ষণিকের ভালোবাসার জন্য আপনাদের কাছে আমি আসিনি। আমি এসেছি আগামী ৫ বছর আপনাদেরকে সাথে নিয়ে পূর্বের ন্যায় সব সময় আপনাদের ভালোবাসা নিয়ে সব সময় পাশে থাকার জন্য। সম্মানিত ২৬ নং ওয়ার্ডবাসী ৫ বছর আগে নির্বাচিত করে আমাকে আপনাদের সেবা করার সুযোগ দিয়েছেন, দেশবাসীকে দেখিয়েছেন আপনারা উন্নয়ন ও অগ্রগতির পক্ষে। পক্ষান্তরে আমি ও সততা ও নিষ্টার সাথে আপনাদের দেয়া আমানত যথাযথ মুল্যায়ন করার চেষ্টা করেছি। এরই ধারাবাহিকতায়, আপনাদের দোয়া ও ভালোবাসা প্রত্যাশায় আমি আবারও ব্যাডমিন্টন(র‌্যাকেট) মার্কা নিয়ে ওয়ার্ডের অসম্পূর্ণ উন্নয়ন কাজ শেষ করতে আবারো প্রার্থী হয়েছি। তাই আমাকে ব্যাডমিন্টন(র‌্যাকেট) মার্কায় ভোট দিয়ে পুণরায় ওয়ার্ডবাসীর সেবা করার সুযোগ দিন। আমি যতোদিন বাচঁবো ওয়ার্ডবাসী তথা ওয়ার্ডের সর্বস্তরের মানুষের সেবা করে যাবো। আমি উন্নয়ন ও অগ্রগতিতে বিশ্বাসী। আমি জানি, আপনারা আমাকে নিরাশ করবেন না। ৩০ জুলাই নির্বাচনের দিন, ব্যালেট পেপার হাতে নিয়ে অন্তত একটি বার আমার কথা মনে করে আপনার পবিত্র আমানত ভোট ও রায় দিয়ে ২৬ নং ওয়ার্ডকে একটি আধুনিক ও নাগরিক সূযোগ সুবিধা সম্পন্ন ওয়ার্ড হিসেবে গড়ে তুলার দায়িত্ব আমাকে অর্পণ করবেন। আমি আমার শ্রম মেধা ও আপনাদের সহযোগিতা নিয়ে ২৬ নং ওয়ার্ডকে একটি আদর্শ ওয়ার্ড হিসেবে গড়ে তুলতে চাই। এই হোক মোর অঙ্গিকার। সবাই ভাল থাকবেন। মহান সৃষ্টিকর্তার কাছে সবার জন্য সুস্থতা ও দোয়া কামনা করছি।

বিনীত
আলহাজ্ব তৌফিক বকস্ লিপন
বর্তমান কাউন্সিলর,২৬নং ওয়ার্ড
(সিলেট সিটি কর্পোরেশন)।

প্রেস-বিজ্ঞপ্তি।

Leave a Reply