‘বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতা চান নাই’ বলায় খালেদার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানার আবেদন

রাজনীতি

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও আওয়ামী লীগকে নিয়ে কটূক্তির অভিযোগে দায়ের করা মামলায় কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির আবেদন করা হয়েছে।

সোমবার (১৬ জুলাই) ঢাকা মহানগর হাকিম আবু সাঈদের আদালতে এই আবেদন করা হয়। মামলার বাদী জননেত্রী পরিষদের সভাপতি এ বি সিদ্দিকীর পক্ষে আবেদনটি করেন আইনজীবী অ্যাডভোকেট আবুল কালাম আজাদ।

বিষয়টি নিশ্চিত করে অ্যাডভোকেট আবুল কালাম আজাদ জানান, মামলার তদন্ত প্রতিবেদন আসায় আইন অনুযায়ী খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির আবেদন করা হয়েছে। আদালত এ বিষয়ে এখনও কোনো আদেশ দেননি, পরে দেবেন বলে জানিয়েছেন।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা গেছে, ২০১৬ সালের ৩১ ডিসেম্বর ইঞ্জিনিয়ারিং ইনস্টিটিউটে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে খালেদা জিয়া বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দেশের স্বাধীনতা চান নাই। তিনি চেয়েছিলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রিত্ব। জেনারেল জিয়াউর রহমান স্বাধীনতার ঘোষণা দেয়ায় এ দেশের জনগণ যুদ্ধে নেমেছিল।’

ওই অনুষ্ঠানে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ নিয়ে একাধিক বক্তব্য দেয়ায় প্রায় একমাস পর ২০১৭ সালের ২৫ জানুয়ারি ঢাকা মহানগর হাকিম আব্দুল্লাহ আল মাসুদের আদালতে জননেত্রী পরিষদের সভাপতি এ বি সিদ্দিকী বাদী হয়ে মামলাটি করেন। আদালত বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ করে শাহবাগ থানার তদন্তকারী কর্মকর্তাকে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন। গত ১ জুলাই ঘটনার সত্যতা পাওয়ায় খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে প্রতিবেদন দাখিল করে শাহবাগ থানা পুলিশ।

Leave a Reply