সিলেট সিটি নির্বাচনে জোটের প্রার্থী আরিফ : মির্জা ফখরুল

সিলেট বিভাগ

৪ জুলাই ২০১৮, বুধবার : রাজশাহী, সিলেট ও বরিশাল সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ২০ দলীয় জোট একক প্রার্থী দেবে এবং জোটগতভাবে প্রার্থীর পক্ষে কাজ করবে। সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে শরিক জামায়াতে ইসলামী ২০ দলীয় জোটের প্রার্থীকে সমর্থন দিয়েছে বলে জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বুধবার বিকালে বিএনপি চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয়ে ২০ দলীয় জোটের বৈঠক শেষ ব্রিফিংয়ে তিনি একথা জানান। এসময় সিলেট সিটি নির্বাচনে জামায়াতের প্রার্থী দেয়ার বিষয়ে সাংবাদিকরা দৃষ্টি আকর্ষণ করলে তিনি বলেন, ‘আমাদের একক প্রার্থীর জন্য কাজ করার বিষয়টি জামায়াত অ্যাপ্রুভ (অনুমোদন) করেছে।’

বিএনপি মহাসচিব বলেন, সংবাদ সম্মেলনে বৈঠকের বিষয়ে বিস্তারিত তুলে ধরেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও ২০ দলীয় জোটের সমন্বয়ক নজরুল ইসলাম খান।

এর আগে মির্জা ফখরুলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য মাওলানা আবদুল হালিম, জাতীয় পার্টি (জাফর) মহাসচিব মোস্তফা জামাল হায়দার, বিজেপি চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার আন্দালিভ রহমান পার্থ,বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টি চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহম্মদ ইবরাহিম বীরপ্রতীক, মহাসচিব এমএম আমিনুর রহমান, বাংলাদেশ ন্যাপ চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি, মহাসচিব এম গোলাম মোস্তফা ভুইয়া,এনডিপি চেয়ারম্যান খোন্দকার গোলাম মোর্ত্তজা, এনপিপি চেয়ারম্যান ড. ফরিদুজ্জামান ফরহাদ, এলডিপি সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব শাহাদাত হোসেন সেলিম, জাগপা সভাপতি অধ্যাপিকা রেহানা প্রধান, সাধারণ সম্পাদক খন্দকার লুৎফর রহমান, খেলাফত মজলিশ মহাসচিব ড.আহমেদ আবদুল কাদের, ডিএল সাধারণ সম্পাদক সাইফুদ্দিন আহমেদ মনি, লেবার পার্টি (একাংশ) চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, (অপরাংশ) মহাসচিব হামদুল্লাহ আল মেহেদী, বিএমএল সভাপতি এএইচএম কামরুজ্জামান খান, মহাসচিব শেখ জুলফিকার বুলবুল চৌধুরী, পিপলস লীগ মহাসচিব সৈয়দ মাহবুব হোসেন, জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম সাংগঠনিক সম্পাদক মুফতী রেজাউল করিম, ইসলামিক পার্টির সাধারণ সম্পাদক আবুল কাশেম প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, সিলেট সিটি নির্বাচনে সদ্য বিদায়ী মেয়র আরিফুল হককে মনোনয়ন দিয়েছে বিএনপি। তবে সেখানে জামায়াতে ইসলামী দলের সিলেট মহানগরী সভাপতি অ্যাডভোকেট এহসানুল মাহবুব জোবায়েরকে প্রার্থী করে। তবে রাজশাহী ও বরিশালে জামায়াত কোনো প্রার্থী দেয়নি।

Leave a Reply