খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে নোংরা রাজনীতি করছে সরকার : রিজভী

রাজনীতি

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে নোংরা রাজনীতি করছে বলে অভিযোগ করেছেন দলের যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

বৃহস্পতিবার দুপুরে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে রিজভী এসব কথা বলেন। এসময় বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘রাজনৈতিক ময়দানে শেখ হাসিনার একমাত্র প্রতিপক্ষ খালেদা জিয়া। এ জন্য তার সঙ্গে এটা করা হচ্ছে।’

বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব বলেন, ‘সরকারের মনে রাখা দরকার, আওয়ামী লীগ প্রধান শেখ হাসিনা প্যারোলে মুক্তি পেয়ে বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছিলেন। তার দলের নেতারাও কারাভোগের সময় বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। কিন্তু দেশনেত্রীকে সেই সুযোগ দেওয়া হচ্ছে না।

তিনি আরো বলেন, ‘এর একমাত্র উদ্দেশ্য খালেদা জিয়াকে সরিয়ে দেওয়া। কিন্তু এসব অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করার জন্য খুব শিগগির জনতা বাঁধভাঙা জোয়ারের মতো বেরিয়ে আসবে।’

রিজভী বলেন, ‘ঈদ একটি ধর্মীয় অনুষ্ঠান, এটি ইবাদতও। তাই আমাদের নেতারা হয়তো সবাই সেটা পালন করবেন, নামাজও পড়বেন। তবে দেশনেত্রী এখন কারাগারে। আমাদের কারো মনে আনন্দ নেই, খুশি নেই। ঈদের দিন দলের স্থায়ী কমিটির সদস্যরা দলের প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের কবরে যাবেন।’

এ সময় তিনি জানান, ঈদের দিন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্যরা খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করতে পারেন।

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান হাফিজ উদ্দীন খান বীরবিক্রম, যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, সহসাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ, নির্বাহী কমিটির সদস্য অধ্যাপক আমিনুল ইসলাম, ওলামা দলের সভাপতি হাফেজ মাওলানা আবদুল মালেক, সাধারণ সম্পাদক মাওলানা নেসারুল হক প্রমুখ।

Leave a Reply