খুলনা সিটি নির্বাচনে অনিয়মে গভীর হতাশা-উদ্বেগ, স্বচ্ছ তদন্তের দাবি যুক্তরাষ্ট্রের

জাতীয়

খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচনের অনিয়মের ঘটনায় গভীর হতাশা প্রকাশ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। নির্বাচনে সংঘটিত অনিয়ম ও হুমকির ঘটনার স্বচ্ছ তদন্তেরও দাবি জানিয়েছে দেশটি।

ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্শা বার্নিকাট নির্বাচনের পরদিন বুধবার সরাসরি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে গিয়ে তার দেশের পক্ষে এ প্রতিক্রিয়া জানান।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, মার্শা বার্নিকাট বুধবার যুক্তরাষ্ট্রের আন্তর্জাতিক সাহায্য সংস্থার (ইউএসএইড) প্রশাসক মার্ক গ্রিনকে নিয়ে পররাষ্ট্রসচিব মো. শহীদুল হকের সঙ্গে তার দপ্তরে দেখা করতে যান। সেখানে তিনি এই উদ্বেগের কথা তুলে ধরেন।

মার্শা বার্নিকাট বলেন, ‘এটা খুব উৎসাহজনক যে অনেক রাজনৈতিক দল নির্বাচনে অংশ নিয়েছে। আমি প্রত্যেককে অভিনন্দন জানাই।’ তবে নির্বাচনে অনিয়মের ঘটনায় হতাশা প্রকাশ করে মার্কিন রাষ্ট্রদূত বলেন, এ নিয়ে স্বচ্ছ তদন্ত হওয়া প্রয়োজন। আর অনিয়ম ও হুমকির ঘটনা অত্যন্ত হতাশাব্যঞ্জক।

মার্শা বার্নিকাট বাংলাদেশের পরের নির্বাচনগুলোতে রাজনৈতিক দলগুলোকে প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী আইনের পরিধিতে থাকারও আহ্বান জানান।

জাতিসংঘও বাংলাদেশে অবাধ ও স্বচ্ছ নির্বাচন আয়োজনের ব্যাপারে আবার আহ্বান জানিয়েছে। গত মঙ্গলবার নিউইয়র্কে নিয়মিত ব্রিফিংয়ে জাতিসংঘ মহাসচিবের মুখপাত্র ফারহান হক এ আহ্বান জানান বলে জানা গেছে।

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী তালুকদার আবদুল খালেক বিজয়ী হয়েছেন। মোট ভোটকেন্দ্র ২৮৯টির মধ্যে অনিয়মের কারণে তিনটি কেন্দ্রের ভোট স্থগিত করা হয়েছে।

তবে নির্বাচনে অনিয়ম, জাল ভোট, বেশ কয়েকটি কেন্দ্র থেকে ধানের শীষের এজেন্ট বের করে দেওয়ার অভিযোগ করেছে বিএনপি।

Leave a Reply