খালেদা জিয়ার জামিন বহাল রেখেছে আপিল বিভাগ

রাজনীতি

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে হাইকোর্টের দেয়া জামিন বহাল রেখেছে আপিল বিভাগ। সেই সাথে ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে আপিল নিষ্পত্তিরও নির্দেশ দিওয়া হয়েছে।

বুধবার (১৬ মে) সকালে আপিল বিভাগ এ রায় দেয়।

গত দুই মাস আগে হাই কোর্টের দেওয়া জামিন আদেশের বিরুদ্ধে দুদক ও রাষ্ট্রপক্ষের আপিল শুনানির পর প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে আপিল বিভাগের চার সদস্যের বেঞ্চ বুধবার এই রায় দেয়।

তবে অন্য মামলায় গ্রেপ্তার থাকায় এখনই খালেদা জিয়ার মুক্তি মিলছে না বলে আইনজীবীরা জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, চলতি বছরের ৮ ফেব্রুয়ারি ঢাকার বিশেষ জজ আদালতে এ মামলার রায়ের পর থেকে সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে নাজিমউদ্দিন রোডের পুরোনো ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে রাখা হয়েছে।

এর আগে মঙ্গলবার (১৫ মে) উভয়পক্ষের শুনানি নিয়ে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন চার বিচারপতির আপিল বেঞ্চ বুধবার তারিখ নির্ধারণের আদেশ দেন। আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। অন্যদিকে খালেদা জিয়ার পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন। এসময় দুর্নীতি দমন কমিশনের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন অ্যাডভোকেট খুরশীদ আলম খান।

ওইদিন সকালে খালেদা জিয়ার জামিন বিষয়ে রায় ঘোষণার জন্য বিচারপতিরা সকাল ৯টা ৩০ মিনিটে এজলাসে প্রবেশ করেন। এক পর্যায়ে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম আদালতকে বলেন, ‘মামলাটি আগামীকাল (বুধবার, ১৬ মে) শুনানির জন্য রাখা হোক। এ বিষয়ে আবারও শুনানি করতে চাই। ওইদিন (গত ৯ মে) হইচই, হট্টগোলের কারণে শুনানি করতে পারিনি।

Leave a Reply