বৃহস্পতিবার সারাদেশে বজ্রপাতে নিহত ১০

জাতীয়

বৃহস্পতিবার (১০ মে) দেশের বিভিন্ন জেলায় বজ্রপাতে ১০ জনের মৃত্যু ও কমপক্ষে ৯ জনের আহত হয়েছেন। এদিন বিভিন্ন সময়ে বজ্রপাতে এই হতাহতের ঘটনাগুলো ঘটে।

হবিগঞ্জ

হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ে বজ্রাঘাতে স্কুলছাত্রীসহ ২ জন নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার বিকালে বাড়ির আঙিনায় রান্না করার সময় বজ্রাঘাতে ঘটনাস্থলেই মারা যায় স্কুলছাত্রী তারিন (১৫)। সে উপজেলার সুজাতপুর ইউনিয়নের সতমুখা গ্রামের জাহির মিয়ার কন্যা।

অপরদিকে, একই উপজেলার দৌলতপুর হাওরে ধান কাটার সময় বজ্রাঘাতে মারা যান ওই গ্রামের বাসিন্দা শ্রমিক মিজানুর রহমান (৫২)।

বানিয়াচং থানার ভারপ্রাপ্ত (ওসি) কর্মকর্তা মোজাম্মেল হক এসব তথ্য নিশ্চিত করেন।

গাজীপুর

গাজীপুরের কাপাসিয়ায় বৃহস্পতিবার ধান কাটার সময় বজ্রাঘাতে দুই শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। এসময় আহত হন একজন।

ঘাগটিয়া ইউপি চেয়ারম্যান শাহিনুর আলম সেলিম জানান, কাপাসিয়া উপজেলার ঘাগটিয়া ইউনিয়নের সালদৈ গ্রামের জয়নাল বেপারীর জমিতে ধান কাটার কাজ করছিল মমিনুর রহমান। আজ বিকালে স্থানীয় চিনার চুল বিল থেকে ধান কাটার সময় বজ্রাঘাতে সে ঘটনাস্থলেই মারা যায়। নিহত মমিনুর কুড়িগ্রাম জেলার কচাঘাটা উপজেলার সভারটেক গ্রামের আহছান আলীর ছেলে।

অপরদিকে, উপজেলার সনমানিয়া ইউনিয়নের দক্ষিনগাঁও চন্ডালহাতা বিলে ধান কাটার সময় বজ্রাঘাতে মোতালিব (৪০) নামে এক শ্রমিক ঘটনাস্থলেই মারা যায়। এসময় আড়াল গ্রামের আলামিন (২৫) আহত হয়।

কুমিল্লা

কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে বজ্রাঘাতে মো. ইসহাক মিয়া (৫৫) নামে সাবেক এক ইউপি সদস্যের (মেম্বার) মৃত্যু হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার দুপুরে বাড়ির পাশ্ববর্তী পুকুরে কচুরিপানা কাটতে গেলে বজ্রাঘাতের শিকার হন ইসহাক। পরে স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

কিশোরগঞ্জ

কিশোরগঞ্জের নিকলী উপজেলার সিংপুর ইউনিয়নে গোড়াদীঘা গ্রামে বাড়ির সামনে খলায় ভুট্টা শুকানোর সময় বজ্রাঘাতে মোমেনা খাতুন (৩৫) নামে এক নারী মারা গেছেন। তিনি গোড়াদীঘা গ্রামের বাসিন্দা।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, আজ দুপুরে বাড়ির পাশে ভুট্টার খলায় মোমেনা খাতুন কাজ করছিল।এসময় বজ্রাঘাতে গুরুতর আহত হন তিনি। তাকে গোড়াদীঘা থেকে উদ্ধার করে নিকলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক মোমেনাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিকলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নাছির উদ্দিন ভূইয়া এই তথ্য জানান।

মেহেরপুর

মেহেরপুরের গাংনীতে বজ্রাঘাতে হেলু জোয়ার্দার (৫৫) নামে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। এসময় আহত হন ৬ জন। বৃহস্পতিবার সকাল ১১টার সময় উপজেলার মোহাম্মদপুর, কসবা ও মটমুড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

মটমুড়া ইউপি চেয়ারম্যান ও মোহাম্মদপুর গ্রামের বাসিন্দা মো. সোহেল আহমেদ জানান, মোহাম্মদপুর গ্রামের হেলু জোর্য়াদার গ্রামের একটি মাঠে কাজ করছিল। এসময় হঠাৎ বজ্রাঘাতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

একই সময় ঘুর্ণিঝড়ে মেহেরপুর সদর উপজেলার তেরঘরিয়া গ্রামের টিনের ঘর পড়ে গেলে তার নীচে চাপা পড়ে তার পাঁচীরন (৭৫) মারা যান।

সাতক্ষীরা

সাতক্ষীরার শ্যামনগরে বজ্রাঘাতে ২ জন নিহত ও ২ জন গুরুতর আহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার (১০ মে) দুপুরে উপজেলার কাশিমাড়ি ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে। শ্যামনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ আব্দুল মান্নান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

নিহতরা হলেন কাশিমাড়ীর ঘোলা গ্রামের আশরাফ হোসেন (২৮) এবং একই ইউনিয়নের গাঙআটি গ্রামের আমিনুর রহমান।

শ্যামনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক ওমর ফারুক বলেন, আশরাফ দুপুরে মাছের ঘেরে কাজ করছিল। এসময় বজ্রাঘাতে সেখানেই তার মৃত্যু হয়। অপরদিকে আমিনুর বাড়ির পাশে মসজিদে নামাজ শেষে বারান্দায় বসেছিল। এমন সময় পাশের গাছে বজ্রপাত ঘটলে তার মৃত্যু হয়।

নওগাঁ

নওগাঁর পত্নীতলা উপজেলায় বজ্রাঘাতে ফিরোজ হোসেন (৩৩) নামে একজনের মুত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে ঘটনাটি ঘটে। ফিরোজ উপজেলার আমইর ইউনিয়নের হরিপুর গ্রামের নিজাম উদ্দিনের ছেলে।

পত্নীতলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মাজহারুল ইসলাম বলেন, দুপুরে বাড়ির পাশে মাঠে কয়েকজন মিলে ধান কাটার কাজ করছিল তারা। এসময় ফিরোজ হোসেনের ওপর বজ্রপাত হলে ঘটনাস্থলেই তিনি মারা যান।

Leave a Reply