জাতীয় অধ্যাপক ও সাহিত্যিক মুস্তাফা নূরউল ইসলাম আর নেই

জাতীয়

জাতীয় অধ্যাপক ও সাহিত্যিক মুস্তাফা নূরউল ইসলাম আর নেই। বুধবার রাতে রাজধানীতে নিজ বাসায় ইন্তেকাল করেছেন ( ইন্না লিল্লাহে ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

৯২ বছর বয়সে এই প্রখ্যাত প্রাবন্ধিক, শিক্ষাবিদ জাতীয় অধ্যাপক বিদায় নিলেন। তিনি ১৯২৭ সালের ১ মে বগুড়ার মহাস্থানগড় সংলগ্ন চিঙ্গাশপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। শিক্ষক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে। সাংবাদিকতার সঙ্গেও যুক্ত ছিলেন কিছুকাল।

পঞ্চাশ দশকের সাড়া জাগানো সাময়িকী ‘অগত্যা’য় তিনি ছিলেন সম্পাদক ফজলে লোহানীর সহকর্মী। ১৯৫৩ সালে করাচি বিশ্ববিদ্যালয়ে বাংলা বিভাগের গোড়াপত্তন হয় তার হাত ধরে। স্বাধীনতার পর রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপনা করেন কিছুকাল। ১৯৭২ সালে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগ দিয়ে বাংলা বিভাগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। তিনি শিল্পকলা একাডেমি, বাংলা একাডেমি, জাতীয় জাদুঘর, নজরুল ইনস্টিটিউট ট্রাস্টি বোর্ডসহ বেশ কিছু সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেন।

৩০টির অধিক প্রবন্ধ সংকলন, গবেষণা ও সম্পাদনা গ্রন্থের রচয়িতা তিনি। তার উল্লেখযোগ্য সাহিত্য ও গবেষণাকর্মের মধ্যে রয়েছে- সাময়িকপত্রে জীবন ও জনমত, সমকালে নজরুল ইসলাম, আমার বাংলা, নিবেদন ইতি, বাঙালির আত্মপরিচয়, নির্বাচিত প্রবন্ধ, আমাদের মাতৃভাষার চেতনা ও ভাষা আন্দোলন, আবহমান বাংলা, মুসলিম বাংলা সাহিত্য, বেঙ্গলী মুসলিম পাবলিক অপিনিয়ন। এ ছাড়াও তিনি সাহিত্যবিষয়ক ত্রৈমাসিক ‘সুন্দরম’ ও সাহিত্য পত্রিকা ‘পূর্বমেঘ’ সম্পাদনা করেছেন।

তিনি বিটিভিতে দীর্ঘদিন সম্প্রচারিত ‘মুক্তধারা’ নামে একটি জনপ্রিয় অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করতেন। তার মৃত্যুতে সর্বত্র শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

Leave a Reply