হাইব্রীড সুবিধাবাদীদের বয়কট করে তৃণমূল থেকে নেতৃত্ব গড়তে হবে

সিলেট বিভাগ

ডেস্ক রিপোর্ট:বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ বলেছেন, আওয়ামী লীগ এদেশের গণমানুষের সংগঠন। এই দলকে সুসংগঠিত করতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের তনয়া জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। তৃণমূলের নেতা-কর্মীদের যথাযথ মূল্যায়নের মাধ্যমে দলের কার্যক্রমকে আরো গতিশীল করেছে। তাই তৃণমূল থেকে নেতৃত্ব গড়ে তুলতে কাজ করতে হবে। হাইব্রীড সুবিধাবাদীদের বয়কটের মাধ্যমে আগামী নির্বাচনে তৃণমূল থেকে প্রার্থী বাছাই করতে হবে। সোমবার সকালে নগরীর একটি হোটেলে সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে ও ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনালের সহযোগিতায় সিলেট জেলা প্রতিনিধি সম্মেলনে তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক মোঃ সাইফুল আলম রুহেলের সঞ্চালনায় মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ বলেন, দেশ বিরোধীরা বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারকে হত্যার পরও থেমে নেই। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যা করতে নানা ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে। কিন্তু তারা সফল হতে পারেনি। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। দেশ আজ দারিদ্র্যমুক্ত। প্রধানমন্ত্রী আজ বিশ্বের নেতা। তিনি বিশ্বের নেতৃত্ব দিচ্ছেন। দেশ আজ আন্তর্জাতিক মর্যাদায় এগিয়ে যাচ্ছে। তা একমাত্র সম্ভব হয়েছে প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বে। বঙ্গবন্ধু হত্যাকারীদের বিচার হয়েছে, যুদ্ধাপরাধীর বিচার হয়েছে। তাই বর্তমানে দেশে যারা বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করছে তাদেরও বিচার হবে। ডেমোক্রেসী ইন্টারন্যাশনাল যেভাবে এ সুন্দর উদ্যোগ গ্রহণ করেছে তা প্রশংসনীয়।
শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনাল সিলেট অঞ্চলের রিজিওনাল ম্যানেজার সুদীপ্ত চৌধুরী। সম্মেলনে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সংসদ সদস্য শফিকুর রহমান চৌধুরী। বক্তব্য রাখেন-সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ আলী দুলাল ও হুমায়ুন ইসলাম কামাল, জেলা আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক এডভোকেট রঞ্জিত সরকার, হাজী ফারুক আহমদ, জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য নুরুল আমিন, আব্দুল হাসিব মুনিম, শহিদুর রহমান শাহীন, জেলা কৃষকলীগের সভাপতি নিজাম উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ শামসুল ইসলাম, বালাগঞ্জ উপজেলা শাখা সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মোস্তাকুর রহমান মফুর, গোয়াইনঘাট উপজেলা শাখার সভাপতি ইব্রাহিম আলী, দক্ষিণ উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক বরইকান্দি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হাজী মোঃ রইছ আলী, জকিগঞ্জ উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক হায়দর আলী, সদর উপজেলা শাখার সভাপতি মফিজুর রহমান বাদশা, বিয়ানীবাজার উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আতাউর রহমান, ওসমানীনগর উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক চেয়ারম্যান আতাউর রহমান, ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা শাখার সহসভাপতি ফয়জুল ইসলাম মানিক, ঘিলাছড়া ইউপি চেয়ারম্যান ও মহানগর আওয়ামীলীগ নেতা আবুল লেইছ চৌধুরী, জৈন্তাপুর উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পদাক লিয়াকত হোসেন, কানাইঘাট উপজেলা শাখার সভাপতি লুৎফুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক রফিক আহমদ, কোম্পানী উপজেলা শাখার সভাপতি আলী আমজদ, সাধারণ সম্পাদক আপ্তাব আলী কালা, জেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি এজাজুর রহমান এজাজ, সাধারণ সম্পাদক শামীমুর রহমান চৌধুরী, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী রুবি ফাতেমা ইসলাম চৌধুরী, সহসভানেত্রী সালমা বাসিত, সাধারণ সম্পাদিকা ও সাবেক কাউন্সিলর এডভোকেট সালমা সুলতানা, ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী জাহানারা বেগম শ্যামা, জকিগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী সাজনা সুলতানা হক চৌধুরী, দক্ষিণ সুরমা আওয়ামীলীগ নেতা মাশুক আহমদ, মহিলালীগ নেত্রী হাসিনা মুহিউদ্দিন, ডাঃ নাজিয়া চৌধুরী, হেলেন আহমদ প্রমুখ। অনুষ্ঠানে নির্বাচন অভ্যন্তরীণ গণতন্ত্র, যোগ্য জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন, প্রশিক্ষিত রাজনীতি কর্মী, শান্তিতে বিজয় ইত্যাদি বিষয়ে দলীয় আলোচনা উপস্থাপনা কর্ম পরিকল্পনা প্রস্তুতি ও বিভিন্ন সুপারিশ তুলে ধরা হয়।

Leave a Reply