এসএসসিতে পাসের হার কমার কারণ ব্যাখ্যা করলেন শিক্ষামন্ত্রী

জাতীয়

এসএসসিতে পাসের হার কমার কারণ ব্যাখ্যা করেছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।

রবিবার সকাল ১০টার দিকে গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল হস্তান্তর করেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। এরপর শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে দুপুরে পাসের হার কমার কারণ ব্যাখ্যা করেন তিনি।

মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) ও সমমানের পরীক্ষায় পাসের হার এবার কমলেও জিপিএ ৫ পাওয়া শিক্ষার্থীর সংখ্যা বেড়েছে।

তবে কেন পাসের হার কমেছে, এ ব্যাপারে ব্যাখ্যা দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী।

এতে সারা দেশে পাসের হার ৭৭ দশমিক ৭৭ শতাংশ, যা গত বছরের চেয়ে ২ দশমিক ৫৮ শতাংশ কম। ২০১৭ সালে ১০ শিক্ষা বোর্ডে গড় পাসের হার ছিল ৮০ দশমিক ৩৫।

তবে এবার গতবারের চেয়ে পাঁচ হাজার ৮৬৮ জন বেশি জিপিএ ৫ পেয়েছে।

পরে দুপুর ১টায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে ফলের নানা দিক নিয়ে আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে আসেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।

এ সময় শিক্ষামন্ত্রী পাসের হার কমার কয়েকটি কারণ উল্লেখ করে বলেন, ‘নকল প্রতিরোধে বিভিন্নমুখী উদ্যোগ নিয়েছিল সরকার। ২৩টি বিষয়ে সৃজনশীল প্রশ্ন পদ্ধতিতে পরীক্ষা হয়েছে। এবং সব শিক্ষা বোর্ডে অভিন্ন মূল্যায়ন পদ্ধতিতে উত্তরপত্র মূল্যায়ন করা হয়েছে। আমরা মনে করছি, এসব কারণে পাসের হার একটু কমেছে।’

নুরুল ইসলাম নাহিদ আরো বলেন, ‘আগে শিক্ষকরা খাতা মূল্যায়নের ক্ষেত্রে একটু ছাড় দিতেন। কিন্তু সারা দেশে অভিন্ন পদ্ধতিতে উত্তরপত্র মূল্যায়নের পর এটা বন্ধ হয়ে যায়। আমরা চাই, সারা দেশ থেকে মেধাবীরা বেরিয়ে আসুক।’

গত ১ থেকে ২৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত সারা দেশে ও দেশের বাইরে কয়েকটি কেন্দ্রে একযোগে এসএসসি ও সমমানের লিখিত বিষয়ের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। আর ব্যবহারিক পরীক্ষা ২৬ ফেব্রুয়ারি থেকে ৪ মার্চ পর্যন্ত চলে।

এ বছর তিন হাজার ৪১২টি কেন্দ্রে মোট ২০ লাখ ৩১ হাজার ৮৮৯ পরীক্ষার্থী অংশ নেয়। তার মধ্যে ১০ লাখ ২৩ হাজার ২১২ জন ছাত্র। ছাত্রীর সংখ্যা ১০ লাখ ৮ হাজার ৬৮৭ জন।

দুপুর ২টার পর থেকে পরীক্ষার্থীরা ফল জানতে পারবে।

যেভাবে জানা যাবে ফল

এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল মোবাইলে এসএমএসের মাধ্যমে পাওয়া যাবে। এ জন্য ssc লিখে স্পেস দিয়ে বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর লিখে স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখে আবার স্পেস দিয়ে পাসের বছর লিখে ১৬২২২ নম্বরে পাঠাতে হবে। মাদ্রাসা বোর্ডের ক্ষেত্রে Dakhil লিখে স্পেস দিয়ে বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর লিখে আবার স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে পাসের সাল লিখে পাঠাতে হবে ১৬২২২ নম্বরে।

এ ছাড়া কারিগরি বোর্ডের এসএসসি ভোকেশনাল পরীক্ষার ফল জানতে ssc লিখে স্পেস দিয়ে বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর লিখে স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে পাসের সাল লিখে পাঠাতে হবে ১৬২২২ নম্বরে। এ ছাড়া www.educationboardresults.gov.bd ওয়েবসাইটে গিয়ে ফল ডাউনলোড করা যাবে।

ফল প্রকাশের পর শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ জানিয়েছেন, গতবারের চেয়ে এ বছর ছেলেদের তুলনায় মেয়েদের পাসের হার বেশি।

Leave a Reply